যক্ষা রোগ প্রতিরোধে আদিবাসী জনগোষ্ঠিকে সচেতন করতে হবেস্টাফ রিপোর্টার ॥ রোববার কিষান বাজারস্থ সিডিসি কার্যালয়ের হলরুমে জাতীয় যহ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) আয়োজিত যহ্মা রোগ প্রতিরোধে আদিবাসী জনগোষ্ঠির করনীয় শীর্ষক জেলা মত বিনিময় সভা  অনুষ্ঠিত হয়।

সিডিসির নির্বাহী পরিচালক যাদব চন্দ্র রায় এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কালিতলা বক্ষব্যধি ক্লিনিকের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাঃ সঞ্চিতা রানী দাস। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন নাটাব কেন্দ্রীয় কার্যালয় হতে আগত আঞ্চলিক প্রতিনিধি কাওছার উদ্দিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নাটাব দিনাজপুর জেলা কমিটির কোষাধ্যক্ষ কাশী কুমার দাস। আদিবাসী জনগোষ্ঠর পক্ষ থেকে আলোচনায় অংশ নেন আদিবাসী জনগোষ্ঠির সাধারন সম্পাদক রমেশ ঋষি, মঙ্গল বেসরা, সন্তোষ ঋষি, সিবানী রানী ও মঙ্গল হেমরম।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে যহ্মা একটি অন্যতম ঘাতক ব্যধি। যা প্রতি বছর বহু লোকের মৃত্যু ঘটায়। আমাদের দেশে বছরে প্রতি লাখে নতুনভাবে যহ্মা রোগে আক্রান্ত হয় ২২৫ জন। বছরে প্রতি লাখে পুরাতন ও নতুনভাবে যহ্মা রোগে আক্রান্ত হয় ৪১১ জন।

বছরে যহ্মার কারণে প্রতি লাখে ৪৫ জন লোকের মৃত্যু ঘটে। আদিবাসীরা সমাজে অনাগ্রসর সুবিধাবঞ্চিত পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠি। তাদের যহ্মা রোগ প্রতিরোধে সচেতন করতে পারলে যহ্মামুক্ত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য