নিউ ইয়র্কের ‘বোমাবাজের’ চিকিৎসা নিয়ে ট্রাম্পের খেদনিউ ইয়র্কের সন্দেহভাজন ‘বোমাবাজ’ আহমেদ খান রাহামির গ্রেপ্তারের পর সরকারি ব্যয়ে চিকিৎসা ও আইনি সহায়তা পাওয়া নিয়ে খেদ প্রকাশ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সোমবার নিউ জার্সিতে পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির পর গ্রেপ্তার হন আফগানিস্তানে জন্ম নেওয়া ২৮ বছর বয়সী রাহামি।

বিবিসি বলছে, ফ্লোরিডার ফোর্ট মায়ার্সে এক নির্বাচনী প্রচারণা সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ট্রাম্প পুলিশের গুলিতে আহত রাহামির চিকিৎসা ও আইনি সহায়তার সমালোচনা করেন।

চিকিৎসা ও আইনি সহায়তা পাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনী অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় হেফাজতে থাকা রাহামির সাংবিধানিক অধিকার। সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, কিন্তু এর খারাপ অংশটি হল, আমরা এখন তাকে (আহত অবস্থায় গ্রেপ্তারের পর) বিস্ময়করভাবে বিনা খরচে চিকিৎসা করাবো। বিশ্বের অন্যতম সেরা কয়েকজন চিকিৎসক তার যত্ন নেবেন।

হাসপাতালে তাকে সর্বাধুনিক ও পুরোপুরি যুগোপযোগী একটি রুম দেওয়া হবে এবং যে উপায়ে আমাদের দেশে রুম সেবা দেওয়া হয় সম্ভবত সে তাও পাবে। এরপর রাহামিকে দেওয়া যে কোনো শাস্তিই অনেক সহনীয় হয়ে যাবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, কী দুঃখজনক অবস্থা।

নতুন যারা যুক্তরাষ্ট্রে আসছেন তাদের ‘কঠোর পরীক্ষা’ নেওয়ার আহ্বানের পুনারাবৃত্তি করেন তিনি। এর পাশাপাশি সম্ভাব্য অভিবাসীরা ‘আমেরিকান মূল্যবোধ’ কতটা ধারণ করছে তা বিবেচনা করে দেখারও আহ্বান জানান।

সাপ্তাহিক ছুটির দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটি ও নিউ জার্সিতে ধারাবাহিক বোমা বিস্ফোরণের কারণে দেশটির আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ইস্যুগুলোর মধ্যে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়টি এখন কেন্দ্রীয় বিষয়ে পরিণত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য