রংপুরে এক ঘণ্টায় আড়াই লাখ গাছ রোপণরংপুরের তারাগঞ্জে এক ঘণ্টায় আড়াই লাখ গাছের চারা রোপণ করে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এলাকাবাসী। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে ৮টা পর্যন্ত ‘সবুজ তারাগঞ্জ গড়ি’ কর্মপরিকল্পনার আওতায় ১৩৫টি রাস্তায় গাছ রোপণ করা হয়।

স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ ১৫৩টি রাস্তার ধারে ৪০ প্রজাতির ফল, ফুল ও ঔষধি গাছ লাগান।

কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের ৪৫টি ওয়ার্ডের নারী-পুরুষরা এতে অংশ নেন। ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচিতে উপজেলাজুড়ে চলে অন্য রকম এক আনন্দ উৎসব।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, হাজারো মানুষ মনের আনন্দে গর্ত খুঁড়ে গাছ লাগাচ্ছেন। সকাল ৭টায় রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে ফিতা কেটে গাছ লাগানো কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহমেদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রংপুরের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার, স্থানীয় সরকারের রংপুরের উপ-পরিচালক সুলতানা পারভিন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, মাহামুদা বেগম, তারাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিলুফা সুলতানা, আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিয়ার রহমান, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

গাছ লাগানো কার্যক্রমে প্রতি ৫০ জন শিক্ষার্থীর জন্য একজন করে তত্ত্বাবধায়ক রাখা হয়। তত্ত্বাবধায়কদের কাছে ছিল বাঁশি ও ড্রাম। ঘড়ির কাঁটা ৭টায় পৌঁছামাত্র তত্ত্বাবধায়করা বাঁশিতে ফুঁ দিয়ে ড্রাম বাজালে গর্ত খুঁড়ে গাছ রোপণের কাজ শুরু করা হয়। ৮টা বাজার সঙ্গে সঙ্গে তত্ত্বাবধায়করা বাঁশিতে ফুঁ দিয়ে ড্রাম বাজালে গাছ রোপণের কাজ বন্ধ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিলুফা সুলতানা বলেন, এক ঘণ্টায় আড়াই লাখ গাছ লাগিয়ে তারাগঞ্জবাসী নজির স্থাপন করেছেন। সবার সহযোগিতায় এটা সম্ভব হয়েছে। তারাগঞ্জবাসী দেখিয়েছেন, ঐক্য থাকলে যে কোনো ধরনের কাজে সফল হওয়া সম্ভব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য