সেক্স টেপ ফাঁস বরখাস্ত কেজরিওয়ালের মন্ত্রী‘সেক্স টেপ’ প্রকাশের পরপরই নিজের মন্ত্রিসভার এক মন্ত্রীকে বহিষ্কার করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

আম আদমি পার্টির (এএপি) বহিষ্কৃত নেতা সন্দ্বীপ কুমার নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টুইটারে এএপি নেতা কেজরিওয়াল বলেন, একটি ‘আপত্তিকর’ সিডি হাতে পাওয়ার পরপরই তিনি সন্দ্বীপ কুমারকে বরখাস্ত করেন।

গত বছর নির্বাচনে জিতে দিল্লির ক্ষমতায় আসে আম আদমি পার্টি।

দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া সাংবাদিকদের বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল সিডি হাতে পাওয়ার ৩০ মিনিটের মধ্যে সন্দ্বীপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছেন।”

“আমাদের দল এএপি দুর্নীতি ও কেলেঙ্কারির বিষয়ে কোনো ধরনের ছাড় না দেওয়ার নীতিতে বিশ্বাসী। এর আগে খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠার সঙ্গে সঙ্গে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছিল।”

বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, কেজরিওয়ালের কাছে কে সিডিটি পাঠিয়েছেন সে বিষয়ে পরিষ্কার কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।

তবে এনডিটিভি’র খবরে বলা হয়, ওম প্রকাশ নামে এক ব্যক্তি যিনি নিজেকে কংগ্রেসের কর্মী বলে দাবি করেছেন, তার কাছে ওই সিডির একটি কপি পাওয়া গেছে।

এনডিটিভি’কে তিনি বলেন, “অচেনা এক ব্যক্তি আমাকে সিডিটি দেয়। আমি তাকে বলেছিলাম কেন সে সিডিটি কেজরিওয়ালের কাছে দিচ্ছে না। তখন সে বলে, ১৫ দিন আগে সে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সিডিটি পাঠিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।”

ওম প্রকাশের এ দাবি অস্বীকার করে সিসোদিয়া বলেন, কেজরিওয়াল এর আগে এ ধরনের কোনো সিডি পাননি।

সিডিতে নয় মিনিটের একটি ভিডিও ও কয়েকটি ছবি রয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। যেখানে দুইজন নারী ও সন্দ্বীপকে দেখা গেছে।

সন্দ্বীপ ওই সিডি ভুয়া বলে মন্তব্য করেন এবং বলেন, দলিত সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি হওয়ায় তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য