২২ বছর ধরে ভাড়া বাসায় চলছে চিরিরবন্দর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের কার্যক্রমদেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ শিক্ষা অফিসের আলাদা কোন ভবন না থাকায় টানা ২২বছর ধরে ভাড়া বাসায় পরিচালিত হচ্ছে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের কার্যক্রম। ফলে শিক্ষকদের সভা সেমিনার প্রশিক্ষন চলাকালীন বাহিরের বিল্ডিং ভাড়াসহ নানামূখী সমস্যায় পড়তে হয় শিক্ষা অফিসে আগত শিক্ষক ও অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীদের।

তথ্য মতে, ১৯৯৪ সালের জানুয়ারী মাস হতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতায় প্রথম মাধ্যমিক স্তরের ছাত্রীদের উপবৃত্তি  প্রদান প্রকল্প দিয়ে এ অফিসের যাত্রা শুরু হয়।

পরবর্তীতে ২০০৩ সাল হতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস হিসেবে কার্যক্রম চালু করে। উপজেলার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অধিকাংশ প্রধান শিক্ষক বলেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস চালু হওয়ার পর হতে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যাদি এখান থেকে পরিচালনা করা হয় ফলে প্রতিনিয়ত শিক্ষকদের অফিসের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করতে হয়। কিন্তু ভাড়া বাসায় রুমের প্রশস্থতা কম হওয়ার কারনে আগত প্রধান শিক্ষক সহকারী শিক্ষকদের বসার জায়গার অভাবে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কাজ করে চলে যেতে হয়।

এছাড়া এনসিটিবি কর্তৃক প্রদত্ত বিনা মূল্যে বিতরনের জন্য বই রাখার নিজস্ব গুদাম না থাকায় সরকারী কোয়াটারের বই রাখতে হয়। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মঞ্জুরুল হক জানান, সমস্যার মধ্যদিয়ে হলেও শিক্ষা সংক্রান্ত কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলছে।

ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন উপজেলায় আলাদা শিক্ষা ভবন নির্মান করা হয়েছে। এখানেও নতুন ভবনের জন্য জমি নির্ধারন করা হয়েছে হয়তো অল্প কিছুদিনের মধ্যে নতুন ভবন স্থাপনের কার্যক্রম চালু হবে।  শিক্ষানুরাগী এলাকাবাসীর অনেকে আশা করছেন শিক্ষা অফিসের  মতো গুরুত্বপূর্ন এই অফিসটির নতুন ভবন যত দ্রুত সম্ভব নির্মান করা হোক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য