মানবিজ শহরে ২,০০০ বেসামরিক নাগরিককে অপহরণ করল দায়েশসিরিয়ায় সহিংসতায় লিপ্ত তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল বা দায়েশ উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর মানবিজ থেকে অন্তত ২,০০০ বেসামরিক নাগরিককে অপহরণ করেছে। সিরিয়ার এসব সাধারণ মানুষ সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকা থেকে পালিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে যাচ্ছিল।

কৌশলগত দিক দিয়ে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ মানবিজ শহরে বেশিরভাগই কুর্দি জনগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে।
সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স বা এসডিএফ জানিয়েছে, মানবিজ শহরের একটি এলাকা থেকে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে যাওয়ার সময় প্রায় ২,০০০ মানুষকে অপহরণ  করেছে দায়েশ। এসডিএফ সিরিয়ায় কুর্দি-আরব জোট নামে পরিচিত। মানবিজ শহরের একটি অংশ এসডিএফ’র নিয়ন্ত্রণে এবং বাকি অংশ দায়েশ সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

মানবিজ শহর থেকে দায়েশ সন্ত্রাসীদের নির্মূলের জন্য এসডিএফ চূড়ান্ত অভিযান শুরু করেছে বলে ঘোষণা দেয়ার পরপরই এসব বেসামরিক মানুষকে অপহরণের খবর এল। এসডিএফ’র মুখপাত্র শারফান দারভিশ জানান, শুক্রবার থেকে দায়েশের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত অভিযান ও শেষ আঘাত শুরু হয়েছে। তিনি আরো জানান, মানবিজের উপকণ্ঠে বেসামরিক লোকজনকে মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করা ১০০ সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। মানবিজ শহরটি দু বছর ধরে দায়েশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

সিরিয়া ও তুরস্ক সীমান্তের উত্তরে এবং রাকা শহরে সন্ত্রাসীদের জন্য একমাত্র সরবরাহ রুট হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে মানবিজ শহর। সন্ত্রাসীদের কবল থেকে এ শহর মুক্ত করা সম্ভব হলে তা হবে ২০১৫ সালের পর সিরিয়ায় দায়েশের জন্য বড় বিপর্যয়। ২০১৫ সালের জুলাই মাসে দায়েশ তুরস্ক সীমান্তবর্তী কুর্দি অধ্যুষিত তাল-আবিয়াদ শহর হারায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য