সৌদিতে বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, আরও কর্মী নেবে জর্ডান 2দীর্ঘ ছয় বছর পর বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে সৌদি সরকার। বুধবার দেশটির শ্রম ও সমাজ উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্ত নেয়। নতুন সিদ্ধান্তের ফলে এখন সব ধরনের কাজে বাংলাদেশি দক্ষ ও অদক্ষ শ্রমিকরা সৌদি আরবে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। গৃহকর্মী ছাড়া গত ছয় বছর ধরে সবরকমের বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছিল রিয়াদ সরকার।

রিয়াদে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ’র বরাত দিয়ে সৌদির সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ আজ (বৃহস্পতিবার) এ খবর দিয়েছে। খবরে বলা হয়, বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগ প্রক্রিয়া পুনরায় চালু হওয়ার বিষয়টি গত জুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সৌদি রাজা সালমান আল সৌদের মধ্যকার বৈঠকের ফলাফল।

শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার খবরে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, “এটি বাংলাদেশের সব খাতের শ্রমিকের জন্য সুসংবাদ। এই সিদ্ধান্তের ফলে সৌদি আরবে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ, অদক্ষ শ্রমিক এবং ডাক্তার, নার্স, শিক্ষক, খামার ও নির্মাণকর্মীসহ সবরকমের পেশাজীবী নিয়োগের পথ সুগম হল।”

রাষ্ট্রদূত জানান, “বর্তমানে সৌদিতে ১৩ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক কাজ করছেন, যাদের মধ্যে রয়েছেন ৬০ লাখ নারী গৃহকর্মী। এখানে প্রায় ৪৮টি খাতে কাজ করছেন আমাদের শ্রমিকরা। নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার ফলে এসব খাতে ফের নিয়োগ পেতে শুরু করবেন বাংলাদেশিরা।”

এদিকে, বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক খাত ও গৃহকর্মী হিসেবে আরও বেশি কর্মী নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে জর্ডান। বাংলাদেশের প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলামের জর্ডান সফরকালে দেশটির শ্রমমন্ত্রী আলী আল গাজায়ি এ কথা জানান।

পাঁচ দিনের সরকারি সফরের অংশ হিসেবে ৫ আগস্ট জর্ডান যান নুরুল ইসলাম। ৮ আগস্ট তিনি জর্ডানের শ্রমমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে এই দুটি খাত ছাড়াও কৃষি, নির্মাণ খাতসহ অন্যান্য খাতে পুরুষ কর্মী নিতে জর্ডানের মন্ত্রীকে অনুরোধ জানান বাংলাদেশের মন্ত্রী।

২০০০ সালে ৯৫ জনের যাত্রার মধ্য দিয়ে জর্ডানে বাংলাদেশি কর্মী যাওয়া শুরু হয়। ২০১২ সালে জর্ডানের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সই করে বাংলাদেশ। এরপর থেকে দেশটিতে বাংলাদেশি কর্মী পাঠানোর পরিমাণ বাড়তে থাকে। বর্তমানে দেশটিতে ১ লাখ ২৫ হাজারের বেশি বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় কাজ করছেন। তাঁদের মধ্যে এক লাখই নারী। ২০১৫ সালেও ২২ হাজার ৯৩ জন বাংলাদেশি কর্মীর জর্ডানে কর্মসংস্থান হয়েছে। আর চলতি বছরের ৪ আগস্ট পর্যন্ত দেশটিতে গেছেন ১৪ হাজার ১৯৪ জন বাংলাদেশি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য