গাইবান্ধায় জেলা জাসদের বর্ধিত সভা আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ অসাম্পদায়িক, গণতান্ত্রিক, বৈষম্যহীন, সমৃদ্ধ ও সুশাসনের বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে এই স্লোগানকে সামনে রেখে বুধবার স্থানীয় জেলা পরিষদ মিলনায়তনে গাইবান্ধা জেলা জাসদের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। গাইবান্ধা জেলা জাসদের সভাপতি গাজী শাহ্ শরিফুল ইসলাম বাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় জাসদের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ডা: একরামুল ইসলাম, জেলা সাধারণ সম্পাদক  ও কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মারুফ মোনা,  কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি, কেন্দ্রীয় সদস্য শাহিন আকতার পারভিন, জেলা জাসদ নেতা জিয়াউল হক জনি, মোক্তাদুর রহমান মিঠু, নুরুজ্জামান প্রধান, আনসার আলী, মুন্সি আনিসুল  ইসলাম সাজু, অ্যাড. শাহ জামিল, কাজী ইব্রাহিম খলিল উলফাত, সেকেন্দার আলী, শিরিন আকতার লিজা, জিজানুর রহমান চুটটু, আব্দুস সালাম জাকির, তানজিমুল ইসলাম পিটার, খোরশেদ আলম, মামুন অর রশিদ রুবেল, মোস্তফা শেখ, সুজন প্রসাদ, নুর মোহাম্মদ বাবু প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিরিন আক্তার এমপি। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ১৫ আগষ্টের শোকাবহ ঘটনা ঘটিয়ে ষড়যন্ত্রকারিা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে উল্টে দিতে চেয়েছিল। অনেক ষড়যন্ত্র অপরাজনীতির বিরুদ্ধে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ করেছে মুক্তিযুদ্ধের শক্তি। তিনি বলেন, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দল বাংলাদেশকে এগিয়ে যাওয়ার সংগ্রামে লিপ্ত রয়েছে। আজ দেশে মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির এক অঘোষিত লড়াই করছে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপিকে জামায়াতে ইসলামী এমনভাবে গ্রাস করে ফেলেছে যে, এখন আর বিএনপি জামায়াতের খপ্পর থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না। বেগম খালেদা জিয়া দেশের দু’বারের প্রধান মন্ত্রী। তিনি যদি সত্যিকার অর্থেই বাংলাদেশকে চান, বাংলাদেশের ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধ ও সংবিধান মানেন তাহলে এদেশের রাজনীতি করতে হলে ওই জঙ্গি, সন্ত্রাস জামায়াতকে অবশ্যই ছাড়তেই হবে। তিনি এটা যত তাড়াতাড়ি বুঝতে পারবেন ততই মঙ্গল। নতুবা তার দল ও রাজনীতি অন্ধকারেই হারিয়ে যাবে। তিনি আর এদেশের রাজনীতিতে ফিরে আসতে পারবেন না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য