হিলারিকে সমর্থন এশিয়ান-আমেরিকান ককাসেরযুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে কংগ্রেসনাল এশিয়ান-আমেরিকান অ্যান্ড প্যাসিফিক আইল্যান্ডার্স ককাস।

বুধবার ফিলাডেলফিয়ার ওয়েল ফারগো সেন্টারে দলটির জাতীয় কনভেনশনে সমর্থনের এই ঘোষণা দেন হাওয়াইয়ের সিনেটর ম্যাজি কে হিরোনো।

তিনি বলেন, অভিবাসীদের অধিকার ও মর্যাদা রক্ষায় হিলারি ক্লিনটনের ঘোষিত অঙ্গীকার তাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে অন্যদের চেয়ে বেশি ‘উপযুক্ত‘ হিসেবে হাজির করেছে।

“সিনেট সদস্য, ফার্স্ট লেডি এমনকি পররাষ্ট্র মন্ত্রী থাকাকালেও অভিবাসীদের পক্ষে তার অবস্থান আমাদের নিশ্চিন্ত করেছে। নভেম্বরের নির্বাচনে এশিয়ান-আমেরিকানরা হিলারিকেই ভোট দেবেন বলে আশা রাখছি।”

ককাসের চেয়ারপারসন কংগ্রেসওম্যান জুডি চু, কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং, মিনেসোটার সিনেটর অ্যামি ক্লবুচার, ক্যালিফোর্নিয়ার কংগ্রেসম্যান মাইক হোন্ডা, কংগ্রেসম্যান মার্ক ট্যাকানো, কংগ্রেসম্যান অ্যামি ভেরা ও গুয়ামের কংগ্রেসওম্যান বডেলা এসময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

৫০ সদস্যের এই ককাসের প্রতিনিধি হিসেবে তারা হিলারির সমর্থনে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালানোরও ঘোষণা দেন।

জুডি চু বলেন, “পেনসিলভেনিয়া, ভার্জিনিয়া, নর্থ কোরোলিনা ও ফ্লোরিডার মত ফলাফল নির্ধারণী রাজ্যসমূহে এশিয়ান-আমেরিকানদের সর্বশক্তি নিয়োগ করতে হবে। কেবল সমর্থন ব্যক্ত করে ঘরে বসে থাকলেই চলবে না, নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে যেতে হবে।

কংগ্রেসনাল এশিয়ান ককাসের চেয়ারপারসন গ্রেস মেং বলেন, “হিলারি আমাদের পরীক্ষিত বন্ধু। ন্যায্য পারিশ্রমিক এবং সকলের জন্যে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে তার প্রচেষ্টা বেশ পুরনো। তার হাত ধরেই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল হবে।”

কনভেনশনের দ্বিতীয় দিন হিলারি ক্লিনটনকে প্রেসিডেন্ট পদে দলের পক্ষে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন দেওয়া হয়।

এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বড় দলগুলোর মধ্যে প্রথম নারী প্রার্থী হিসেবে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন পেয়ে ইতিহাস গড়েছেন সাবেক এ ফার্স্টলেডি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য