বেলফোর ঘোষণা ব্রিটেনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করবে ফিলিস্তিনফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি বলেছেন, ১৯১৭ সালের বেলফোর ঘোষণার জন্য ব্রিটেনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করার পরিকল্পনা নিচ্ছেন তারা। ওই ঘোষণার ফলে ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে ইহুদিবাদীদের দখলদারিত্ব কায়েম ও ইসরাইল সৃষ্টির পথ উন্মুক্ত হয়।

মৌরিতানিয়ায় আরব লীগের এক বৈঠকে রিয়াদ আল-মালিকি সম্প্রতি এ ঘোষণা দিয়েছেন। মামলা দায়ের করার জন্য তিনি আরব লীগের সহায়তা চেয়েছেন।

১৯১৭ সালের নভেম্বর মাসে বেলফোর ঘোষণায় তৎকালীন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্থার বেলফোর বলেছিলেন, “ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইহুদি জনগণের জন্য জাতীয় আবাসন গড়ে তোলার বিষয়ে ব্রিটিশ সরকার ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করে।”

এই ঘোষণা ১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিনিদের জন্য ডেকে আনে ইতিহাসের কলংকিত অধ্যায় ‘নাকাবা দিবস’ বা বিপর্যয়ের দিন। ১৯৪৮ সালের এ দিনে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড থেকে সাত লাখের বেশি মানুষকে ঘরবাড়ি ছাড়া করা হয়।

আরব লীগের সম্মেলনে ফিলিস্তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেছেন, “১৯১৭ সালের পর প্রায় একশ বছর পেরিয়ে গেছে। ব্রিটিশরা আমাদের জাতির বিরুদ্ধে যে অপরাধ করেছে এবং যার কারণে ১৯৪৮ সালের গণহত্যা হয়েছে সেসব বিষয়ে এখন আমরা তাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ফৌজদারি মামলা করার পদক্ষেপ নেব।”

রিয়াদ আল-মালিকি আরো বলেন, “বেলফোর ঘোষণার অধীনে পুরো ইউরোপ ও বিশ্বের অন্যান্য জায়গা থেকে লাখ লাখ ইহুদি জড়ো করে আমাদের জনগণের জীবনের বিনিময়ে ইহুদিদেরকে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে বসবাসের সুযোগ করে দেয়া হয়। অথচ এইসব ফিলিস্তিনি হাজার বছর ধরে আমাদের এই ভূখণ্ডে বসবাস করে আসছিল।”

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য