গাইবান্ধার চরাঞ্চলে র‌্যাব-বিজিবি ও পুলিশের জঙ্গী বিরোধী অভিযানআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীর দুর্গম চরাঞ্চলে জঙ্গী বিরোধী অভিযান চালানো হয়েছে। র‌্যাব-বিজিবি ও পুলিশের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনী শুক্রবার  ভোর ৫টা থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত অভিযান চালান। তবে ৬ ঘন্টার অভিযানে কোনো জঙ্গী সদস্যকে আটক করতে না পারেনি।

তবে দেশীয় ৭টি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে তারা। সন্ত্রাস ও জঙ্গী গোষ্ঠির সন্ধানে র‌্যাব ২০, বিজিবি ২০ ও ৮০জন পুলিশের যৌথ ভাবে উপজেলার ফুলছড়ি ইউনিয়নের চরখোলাবাড়ি, খঞ্চাপাড়া, গাবগাছি ও বাঘবাড়ি চরে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান চলাকালে সামুরাই ২টা, রাম দা ১টা, ছোড়া ১টা ও ছোট ৩টি দাসহ ৭টি দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে। তবে  কোন অপ্রতিকর ঘটনা ঘটেনি।

ফুলছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ খায়রুল বাশার জানান, সম্প্রতি বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি, গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার চরগুলোতে যৌথ বাহিনীর সদস্যরা জঙ্গী বিরোধী অভিযান চালায়। তারেই অংশ হিসেবে উপজেলার ফুলছড়ি ইউনিয়নের চরখোলাবাড়ি, খঞ্চাপাড়া, গাবগাছি ও বাঘবাড়ি চরে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ ব্যাপারে গাইবান্ধার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারুক হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সন্ত্রাসও জঙ্গী গোষ্ঠির খোঁজে ১২০ জন পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি যৌথ ভাবে ফুলছড়ি চারটি চরাঞ্চলে অভিযান চালানো হয় এবং একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে ৭টি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধা করা হয়। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য