সংঘর্ষ Songorshoআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশ কনস্টেবল রোকনুজ্জামানসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ কমপক্ষে ৩০/৪০ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  রোববার রাতে উপজেলার কোচারশহর ইউনিয়নের চাঁদপাড়া বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাম্মেল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উপজেলার কোচারশহর ইউনিয়নের বাতপুর গ্রাম ও চাঁদপাড়া গ্রামের লোকজন পূর্ব শত্র“তা ও আদিপত্য বিস্তারকে  কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এসময় ৩০/৪০ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুড়ে পুলিশ। ওসি আরো জানান, পরে পুলিশের সঙ্গে গাইবান্ধা-৪, গোবিন্দগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থলে যান। পরে তিনি এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি নিরসন ও পরবর্তীতে বসার কথা জানান।

তবে স্থানীয়দের দাবী, বাকপুর গ্রমের জাফর মিয়ার সঙ্গে চাঁদপাড়া গ্রামের এনামুল হক নামের এক যুবকের গাঁজা কেনা-বেচা নিয়ে দ্বন্ধ চলছিল। এর  জের ধরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চাঁদপাড়া বাজারের ৪/৫টি দোকান ও একটি  মোটরসাইকেল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের পর আহতদের উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে সংঘর্ষের ঘটনার পর থেকে দু’গ্র“পের মধ্যে থমথমে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য