দিনাজপুর পৌরসভায় হরিজন বাসফোর কমিটির নবনির্বাচিত সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানস্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষেরা বিভিন্নভাবে আজ বৈষম্যের শিকার হচ্ছে। হরিজন বাসফোর সদস্যরা ঐক্যবদ্ধভাবে সংগঠনের পতাকাতলে এসে তাদের নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আমরা চাই, দেশের সকল জেলার দলিত জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচীর আওতায় আনতে।

শনিবার দিনাজপুর পৌরসভার হল রুমে সদর হাসপাতাল, বালুবাড়ী, ষষ্ঠিতলা ও কাচারী হরিজন পল্লী’র সদস্যদের নিয়ে গঠিত দিনাজপুর হরিজন বাসফোর কল্যাণ পরিষদ আয়োজিত ৩ বছর মেয়াদী নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন। হরিজন বাসফোর কল্যাণ পরিষদের সভাপতি শ্রী জুয়েল বাসফোর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শ্রী রংলাল বাসফোস।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী আকবর অরেঞ্জ, নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি শ্রী আকাশ বাসফোর, সহ-সভাপতি শ্রী রমেশ বাসফোর, কোষাধ্যক্ষ শ্রী হরি বাসফো, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজা বাসফো, দপ্তর সম্পাদক অনীল বাসফো, প্রচার সম্পাদক মিন্টু বাসফো ও নির্বাহী সদস্য আলেয়া বাসফো, পুতুল বাসফো, আশা বাসফো এবং উপদেষ্টা শ্রী প্রদীপ বাসফো। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন গ্রাম বিকাশ কেন্দ্রের আলো প্রকল্পের কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর অপরেশ কুমার দাস অপু।

সভাপতি শ্রী জুয়েল বাসফো তার বক্তব্যে বলেন সকল মহানগরী ও পৌরসভা সমূহে দলিত জনগোষ্ঠীর আবাসন সমস্যা সমাধানে বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। সেক্রেটারী শ্রী রংলাল বাসফো বলেন অবিলম্বে আইন কমিশন সুপারিশকৃত বৈষম্য বিলপ আইন- ২০১৪ প্রণয়ন করতে হবে এবং সরকারি চাকুরীতে দলিত জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য