Gaibanda Mapআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ নদী ভাঙনের কারণে সৃষ্ট সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে মামলা থাকায় গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত নির্দেশনা ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাচন অফিসে এসে পৌঁছায়। ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শফিকুর রহমান আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হাইকোর্টে দায়ের করা রিট পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত আদেশের কপি মঙ্গলবার পেয়ে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তা নির্দেশনার আলোকে স্থানীয় ভাবে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে গজারিয়া ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য প্রার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করবেন। ষষ্ঠ ধাপে ৪ জুন এ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তিনি বলেন, ৬ষ্ঠ ধাপে উপজেলার কঞ্চিপাড়া, উড়িয়া, উদাখালী, ফুলছড়ি ও এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

সংশ্লি¬ষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গজারিয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মনোতোষ রায় মিন্টু ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙনে গজারিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের মানচিত্র বদলে যাওয়া এবং ভৌগলিক পরিবর্তনের অভিযোগ এনে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। এর পরিপেক্ষিতে হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ মো. দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি একেএম শহিদুল হকের আদালত ২৪/০৫/২০১৬ইং তারিখে তিন মাসের স্থগিতাদেশ দেন।

এদিকে প্রচার-প্রচারণার শেষ মুহুর্তে এসে নির্বাচনের মাত্র তিন দিন আগে নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় ইউনিয়নের প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ও ভোটারসহ জনসাধারণের মধ্যে চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৪ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন প্রার্থী প্রতীক পেয়ে তাদের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা, গণসংযোগ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য