দিনাজপুর জেলা দলের ফুটবল ও ভলিবল খোলোয়াড়দের সংবর্ধনাদিনাজপুর সংবাদাতাঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, ভালো চরিত্র গঠনের উত্তম মাধ্যম হলো খেলাধুলা। একজন ভালো ক্রীড়াবিদ তার ক্রীড়া নৈপুন্যতায় নিজেকে, সমাজকে এবং দেশকে অনেকদুর এগিয়ে নিতে পারে। এই সরকারও ক্রীড়ার উন্নয়নে এবং বিভিন্ন ইভেন্টে খেলোয়াড় সৃষ্টিতে বহুমুখি পদক্ষেপ নিচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রংপুর বিভাগীয় কশিমনার গোল্ডকাপ ফুটবল ও ভলিবল চ্যাম্পিয়ন দিনাজপুর জেলা দলের কৃতি খোলোয়াড়দের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ ইকবালুর রহিম একথা বলেন।

দিনাজপুরের খেলাধুলার উন্নয়নে সব রকম সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে হুইপ ইকবালুর রহিম বলেন, খোলোয়াড় ও ক্রীড়ামোদি মানুষের কাছে আমার নির্বাচনী অঙ্গিকার ছিল আন্তর্জাতিক মানের দিনাজপুর স্টেডিয়াম নির্মান। সেই স্টেডিয়ামের নির্মান কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

হুইপ ইকবালুর রহিম খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা যত বেশী বেশী কৃতি খেলোয়াড় সৃষ্টি করবেন এবং যতবেশী চ্যাম্পিয়ন ট্রফি দিনাজপুরকে এনে দিবেন, আমি ততবেশী আমার অবস্থান থেকে খেলোয়াড়দের সর্বক্ষেত্রে সহায়তার হাত প্রসারিত করবো।

শিল্পকলা একাডেমি অডিটরিয়ামে রংপুর বিভাগীয় কশিমনার গোল্ডকাপ ফুটবল ও ভলিবল চ্যাম্পিয়ন দিনাজপুর জেলা দলের কৃতি খোলোয়াড়দের সংবর্ধনা ও তৃনমূল পর্যায়ে প্রতিভাবান খোলোয়াড়দের সনদ বিতরনের এই অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিল দিনাজপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা।

অনুষ্ঠানে দিনাজপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মচারী প্রয়াত আব্দুলের পরিবার ও অসুস্থ্য কাবাডী খেলোয়াড় রাশেদুজ্জামান মিন্টুকে সংস্থার পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে ক্রীড়া সংগঠকসহ দিনাজপুরের বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের মৃত্যুতে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

দিনাজপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলমের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু রায়হান মিয়া, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি জিনাত ারা চৌধুরী, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম । স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক সুব্রত মজুমদার ডলার।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য