খুচরা বাজারে দাম বাড়ছে ব্রয়লার মুরগিরডেক্স রিপোর্টঃ দেশীয় খামারে উৎপাদিত এই মুরগি শখুচরা বাজারে প্রতি কেজি ১৭৫ থেকে ১৯০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

খুচরা ব্যবসায়ীরা জানান, ফার্মের মুরগির দাম আরও বাড়তে পারে বলে পাইকাররা তাদের জানিয়ে রেখেছেন।

রোজাকে সামনে রেখে ডাল, ছোলা, চিনিসহ আরও কয়েকটি পণ্যের দাম চলতি মাসে দফায় দফায় বেড়েছে।

পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় এসব পণ্যের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই বলে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর থেকে দাবি করা হলেও বাজারে ইতিবাচক পরিবর্তন আসেনি।

ছোলার দাম আরেক ধাপ বেড়ে কোথাও কোথাও একশ টাকায় প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে।

মহাখালী ও কারওয়ান বাজারে পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমলেও ডাল, রসুনের চড়া দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

জেলার খামার মালিক দিনাজপুরনিউজকে জানান, ব্রয়লার মুরগি খামারেই তারা প্রতি কেজি ১৬০ টাকায় বিক্রি করছেন। সারা দেশেই মুরগির দাম বেড়েছে।

দাম বাড়ার কারণ সম্পর্কে এই ব্যবসায়ী বলেন, তীব্র গরম ও অন্যান্য কারণে কিছুদিন থেকে খামারে মুরগি মারা যাচ্ছে।

এছাড়া ওষুধ ও খাবারের ব্যয় বেড়ে গেছে। চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কিছুটা কম। বাচ্চা মুরগির দাম ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৭৫ টাকা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে মসুর ডাল ১৪০ টাকা, মুগডাল ১০০ টাকা, ছোলা ৯৫ টাকা ও ডাবলি ৫৫ টাকায় প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে। ভারতীয় পেঁয়াজ ৩০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৫০ টাকা, আমদানি রসুন ২৪০ টাকা, দেশি রসুন ১৬০ টাকা করা হয়েছে।

পবিত্র রমজানকে পূজী করে পাইকারি ব্যবসায়ীরা নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে নিজেদের ইচ্ছে মতো ব্যবসা করে নিচ্ছেন। খুচরা ব্যবসায়ীরা এক্ষেত্রে অসহায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য