Birgonj Hospatal 2বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃঃ বীরগঞ্জে ৫০ শর্য্যা হাসপাতাল আছে, সরকার প্রদত্ত পর্যাপ্ত ঔষধ আছে,ও হাজার হাজার রোগী আছে কিন্তু ডাক্তার আছে মাত্র ২জন । গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধনের মাধ্যমে গত অক্টোবর মাসের বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শর্য্যা থেকে ৫০ শর্য্যায় উন্নীত করা হয়। ৩১ শর্য্যার জন্য যে  সংখ্যক জনবল প্রয়োজন তার চেয়েও কম জনবল রয়েছে, ফলে ৫০ শর্য্যার কার্যক্রমতো দুরের কথা ৩১ শর্য্যার কার্যক্রমই চলছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে। স্বাস্থ্য কমপে¬¬ক্স সুত্রে জানা যায়, ৩১ শর্য্যার স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের জন্য চিকিৎসকদের ৯টি পদ রয়েছে কিন্তু কর্মরত আছেন ২ জন। এদেরমধ্যে একজন ডা.মোঃ সোহরাব হোসেন, অপরজন ডা.মোঃ আসিফ আনোয়ার। দু’জন ডা. দিবা ও নৈশ্যকালিন ৩১ শয্যার রোগী, জরুরী বিভাগে ৩৫/৪০জন ও বহির বিভাগে প্রায় ২শত থেকে ২শত ৫০ জন রোগী’র চিকিৎসা করেন। অপর দিকে ৫০ শর্য্যা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকসহ ২৮ জন ডাক্তার থাকার কথা। এ ছাড়াও নার্স, আয়া, পিয়নসহ অন্যান্য কর্মচারীদের পদও আনুপাতিক হারে বাড়ার কথা। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ আবু সাঈদ মোঃ রফিকুজ্জামান বলেন, যোগদানের পর হতে চিকিৎসক ও কর্মচারী অভাবে রাত-দিন কাজ করেও ভাল করতে পারিনি। কারন হিসেবে  তিনি জানান রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে সরকার ৫০ শয্যার লোকবল প্রদান করলে উপজেলাবাসী উন্নত চিকিৎসা সেবা পাবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য