হুমকি মোকাবেলায় নিখুঁত অস্ত্র মোতায়েন করেছিরাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেছেন, তার দেশের বিরুদ্ধে বেড়ে চলা হুমকি নস্যাৎ করার জন্য দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্তে দূর-পাল্লার নিখুঁত অস্ত্র মোতায়েন করা হয়েছে। বার্তা সংস্থা এপি গতকাল (শুক্রবার) এ খবর দিয়েছে।

শোইগু কোনো দেশের নাম উল্লেখ না করে বলেছেন, “আমাদের সীমান্তে কাছে কয়েকটি দেশের সামরিক উপস্থিতি জোরদার করার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা সেখানে আমাদের সামরিক শক্তি বাড়িয়ে তুলেছি।

রুশ সীমান্তের কাছে আমেরিকা ও ন্যাটোর জোরালো সামরিক উপস্থিতি সম্পর্কেই দৃশ্যত শোইগু এসব কথা বলেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান, সম্ভাব্য হুমকি মোকাবেলার জন্য দক্ষিণের সামরিক অঞ্চলে বিমান প্রতিরক্ষা ও নৌশক্তির এক-তৃতীয়াংশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আগামী জুলাই মাসে ওয়ারশ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠানের আগে ন্যাটো জোট রুশ সীমান্তে সামরিক উপস্থিতি জোরদার করার কৌশল নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে ন্যাটো সদস্য দেশগুলো রাশিয়ার আপত্তি উপেক্ষা করে সীমান্তে বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েন করেছে।

গত ১৩ মে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ন্যাটোর এসব তৎপরতার তীব্র সমালোচনা করে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন, তার দেশের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য যেকোনো হুমকি বানচাল করে দেবে তার প্রশাসন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য