পাইলটের ভুলে বিশ্বে প্রায় ৫০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনা ঘটছেবিশ্বে যে কোনো বিমান দুর্ঘটনা ঘটলেই প্রথমেই সন্ত্রাসবাদের কারণে তা ঘটেছে বলে ধারণা করা হলেও প্রকৃতপক্ষে পাইলটের ভুলের কারণে দুনিয়াতে প্রায় ৫০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনা ঘটছে। কনজারভেশন ডট কম ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি নিবন্ধে এ কথা লিখেছেন ব্রিটেনের লেইসেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল সেফটি অ্যান্ড সিকুউরিটি ইউনিটের পরিচালক সাইমন অ্যাশলি বেনেট।

এ নিবন্ধে বর্তমান বিশ্বে বিমান দুর্ঘটনা প্রধান পাঁচটি কারণ তুলে ধরেছেন তিনি। বিমান আগের তুলনায় অনেক বেশি নির্ভরযোগ্য হয়ে উঠলেও পাইলটের ভুলের মাত্রা বেড়েছে বলে জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, এ জাতীয় ভুলের কারণে ৫০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনা ঘটে।

তিনি জানান, বিমান একটি অতিমাত্রায় জটিল যন্ত্র এবং এতে নানা রকম ব্যবস্থাপনার প্রয়োজন রয়েছে। বিমান আকাশে ওড়ার প্রতিটি পর্যায়ে সক্রিয় ভাবে তৎপর থাকতে হয় পাইলটকে। আর এ কারণে ভুলের অবকাশ সৃষ্টি হয় বলে জানান এ নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ।

অবশ্য এ জাতীয় ভুলকে মেনে নেয়া কঠিন এবং তা দুঃখজনক। তারপরও এ কথা মনে রাখতে হবে, আকাশে বিমান যখন কোনো মারাত্মক গোলযোগ পড়ে তখন তার শেষ ভরসা হলেন পাইলট। পাইলটের তৎপরতার কারণেই অনেক বিমান দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এ ছাড়া, কারিগরি বা যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ২০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনায় পড়ে। খারাপ আবহাওয়াও বিমান দুর্ঘটনার কারণ হয়ে উঠতে পারে। এমন কারণে ১০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনা পড়ে। এ ছাড়া, বহুল কথিত সন্ত্রাসবাদের কারণেও সমপরিমাণ অর্থাৎ ১০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনার মোকাবেলা করে।

এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলারদের ভুল, রক্ষণাবেক্ষণে নিয়োজিত প্রকৌশলীদের ভুল বা জ্বালানি ভরা এবং মাল ওঠানো সংক্রান্ত ভুলের মতো নানা মানবিক ভুলের কারণ বাকি ১০ শতাংশ বিমান দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান তিনি।

ইজিপ্ট এয়ারের ফ্লাইট ৮০৪ বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ নিয়ে যখন নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে তখন এ নিবন্ধ প্রকাশিত হলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য