জেলা তথ্য অফিসের উদ্যোগে চিরিরবন্দর উপজেলায় মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিতওয়েব ডেস্কঃ ‘সরকারের সাফল্য অর্জন ও উন্নয়ন ভাবনা বিষয়ে জনগণকে অবহিতকরণ এবং উন্নয়ন কার্যক্রমে সম্পৃক্তকরণের জন্য উদ্বুদ্ধকরণের লক্ষ্যে বিশেষ প্রচার কার্যক্রম’ এর আওতায় দিনাজপুর জেলা তথ্য অফিসের উদ্যোগে  ও উপজেলা প্রশাসন চিরিরবন্দর এর সহযোগিতায় ১৮ মে’ ২০১৬ বুধবার সকাল ১০টায় চিরিরবন্দর উপজেলার বঙ্গবন্ধু হলে মহিলা সমাবেশ ও সঙ্গীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার চিরিরবন্দর মোঃ ফিরোজ মাহমুদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহিলা সমাবেশে সরকারের সাফল্য ও অর্জন তুলে ধরে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সিনিয়র তথ্য অফিসার দিনাজপুর আবুল কালাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন দিনাজপুর ডাঃ অমলেন্দু বিশ্বাস এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপপরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, দিনাজপুর কৃষিবিদ মোঃ গোলাম মোস্তফা। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নিবেদিতা দাস।

মহিলা সমাবেশে বক্তাগণ সরকারের সাফল্য ও উন্নয়ন ভাবনা তুলে ধরে টেকসই উন্নয়ন ও সাফল্য নিশ্চিত করার জন্য মাদক, যৌতুক, বাল্যবিবাহ, জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং স্যানিটেশন নিশ্চিত করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। পাশাপাশি অগ্নিকান্ড, ভ’মিকম্প ও বজ্রপাতের মত দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে আলোকপাত করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিভিল সার্জন স্বাস্থ্যখাতে সরকারের সাফল্যের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে মাদক, দূর্নীতি ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে নারী সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মা-দের অংশগ্রহণে বিভিন্ন স্থানে ‘জাগ্রত মা’ নামক সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপপরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বলেন কৃষিকে অগ্রাধিকার প্রদান করে সরকারের সঠিক নীতি প্রয়োগের কারণে ১৯৭২ সালের তুলনায় খাদ্য উৎপাদন তিনগুণের বেশী বৃদ্ধি পেয়েছে এবং বর্তমানে বাংলাদেশ চাল রপ্তানীকারক দেশে পরিণত হয়েছে।  উন্নয়নের এ ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য আগামী প্রজন্মকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে মায়েদের সচেতন হয়ে ‘জাগ্রত মা’ হিসেবে সমাজে ভ’মিকা রাখার জন্য তিনি নারী সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাবেশে অভিভাবক, নারী সংগঠনের প্রতিনিধি, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, ছাত্রীসহ প্রায় ৩০০ জন অংশগ্রহণ করেন। মহিলা সমাবেশের শুরুতে তথ্য অফিসের শিল্পীগণ বিষয়ভিত্তিক সংগীত পরিবেশ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য