দিনাজপুরের ১৩ উপজেলায় অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচীর কাজ চলছেনিজস্ব প্রতিনিধিঃ দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচীর ২য় পর্যায়ের আওতায় দিনাজপুর জেলার বিরামপুর, বীরগঞ্জ, বিরল, বোচাগঞ্জ, চিরিরবন্দর, ফুলবাড়ী, ঘোড়াঘাট, হাকিমপুর, কাহারোল, দিনাজপুর সদর, নবাবগঞ্জ, পার্বতীপুর ও খানসামা উপজেলায় ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১৮ কোটি ৬৫ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৯ টাকা অর্থ বরাদ্দে প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে।

জেলা দূর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে- ১৩ উপজেলায় প্রতিদিন ২০ হাজার ৭৬৮ জন কার্ডধারী শ্রমিক প্রকল্পের কাজ করছে। কাজ শেষে শ্রমিকদের নামীয় স্ব-স্ব ব্যাংক এ্যাকাউন্টে ২শ টাকা মজুরী বাবদ প্রদান করা হচ্ছে। অপরদিকে ২৫ টাকা সঞ্চয় হিসেবে এ্যাকাউন্টে জমা থাকছে, যা পরবর্তীতে তারা উত্তোলন করতে পারবে।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ, বিরামপুর দুই উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোঃ মনিরুজ্জামান সরকার জানান- প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কবরস্থানে মাঠ ভরাট ও রাস্তা সংস্কার। প্রকল্পের শ্রমিকদের কাজ সঠিকভবে তদারকি করছে নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ বজলুর রশীদ।

তবে, সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে কর্মসংস্থানের প্রকল্পের শ্রমিকদের মজুরী মাত্র ২শ টাকা নির্ধারন থাকায় অনেক শ্রমিক বোরো ধান কর্তনের কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। কেননা এখানে কাজ করলে কৃষি শ্রমিকেরা তাদের দিন হাজিরা ৫’শ থেকে ৬’শত টাকা পর্যন্ত উপার্জন করতে পারে।

এর ফলে বোরো কর্তনের ভরা মৌসুমের অনেক শ্রমিক কাজে অনুপস্থিত রয়েছেন। সংশ্লিষ্ট উপজেলার প্রকল্প কর্মকর্তার দপ্তরসূত্রে জানা গেছে যারা কাজ করেনি তাদের মজুরী দেওয়া হবে না। এলাকার জনপ্রতিনিধিরা জানান- প্রকল্পের কাজগুলো সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করা হলে দিনাজপুর জেলায় ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ হবে এবং এতে করে উপকৃত হবে এলাকাবাসী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য