ফুলবাড়ীতে বিজিবি এর উদ্যেগে কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংসফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ২৯ বিজিবি এর উদ্যেগে ১ কোটি ১৭লাখ৫৬ হাজার ২০৯ টাকার মাদক দ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দরা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের যৌথ প্রচেষ্ঠায় মাদকমুক্ত সমাজ গড়ার আহবান জানিয়েছেন।

আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ২৯ বডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সদর দপ্তরে এক সুধি সমাবেশের মধ্য দিয়ে২৯ বিজিবির সদস্যদের অভিযানে আটককৃত মাদকদ্রব্য ১ম শ্রেণীর জুডিশিয়াল মেজিষ্ট্রেট এর অনুমাতিক্রমে এই মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান ও বিশেষ অতিথিগণ উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রংপুর রিজিয়ন সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহরিয়ার আহমেদ চৌধুরী বলেছেন,বর্তমান জজাতির উজ্জহল ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখছেন। উজ্জল ভবিষ্যতের জন্য দরকার উজ্জল প্রজন্ম,কিন্তু মাদক সেই উজ্জল ভবিষ্যত ধ্বংস করে দিচ্ছে।তাই মাদকের হাত থেকে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে রক্ষা করতে ঘরে ঘরে মাদকের প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। এজন্য প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি এবং জনগণকে সম্মিলিতভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান বলেছেন, মাদক আমাদের দেশ ও জাতির শত্রু। আমাদের দেশে যে পরিমাণ মাদক পার্শ্ববতী রাষ্ট্র পাচার হয়ে আসছে তার বিনিময়ে চলে যাচ্ছে মুল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা। এজন্য মাদক শুধু আমাদের যুব সমাজকেই ধ্বংস আমাদের অর্থনীতিকেও পঙ্গু করে দিচ্ছে। এজন্য এর বিরুদ্ধে আমাদেরকে এখনই রুখে দাঁড়াতে হবে।

ফুলবাড়ী পৌরমেয়র মুরতুজা সরকার মানিক বলেছেন, আমি জনপ্রতিনিধিত্ব করতে গিয়ে দেখেছি একজন মা তার মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিচ্ছে নিরুপায় হয়ে। বাবা দিচ্ছে তার অবাধ্য সন্তানকে। এতেই দেখা যায়, ঘরে ঘরে মাদকের কান্না শুরু হয়েছে। তাই সকলে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই মাদককে বন্ধ করতে হবে। একই কথা বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এহেতেশাম রেজা। তিনি আরোও বলেন, বর্তমান উন্নয়নের ও অগ্রযাত্রায় মাদক একটি বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই ধ্বংসযোগ্য মাদক দেখেই আমাদেরকে শিক্ষা নিতে হবে কি পরিমাণ মাদক আমাদের দেশে প্রবেশ করছে। এজন্য প্রশাসন জনপ্রতিনিধি ও জনগণকে এক হয়ে মাদকের বিরুদ্ধে লড়তে হবে।

২৯ বিজিবির অধিনায়ক লে:কর্ণেল কোরবান আলী বলেন, গত ২০১৫ সালের ১এপ্রিল থেকে ২০১৬ সালের ২৯ মে পর্যন্ত ২৯ বিজিবির টহলদল মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ২১,১৬৮ বোতল ফেন্সিডিল, ১০লিটার তরল ফেন্সিডিল ও ১,৫০৮বোতল বিদেশী মদ ২৫৮লিটার দেশীমদ, ১,৬১০ বোতল নেশা জাতীয় সিরাপ, ৪৭ ক্যান বিয়ার, ৬দশমিক ৫৭৪ কেজী গাঁজা, ৫কেজী মদ তৈরীর বড়ি, ২০৫২টি ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার নেশা জাতীয় ট্যাবলেট, ১০৮৭টি ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার নেশা জাতীয় ইনজেকশন ধ্বংস করা হয়। যার বাজার মুল্য  ১ কোটি ১৭লাখ৫৬ হাজার ২০৯ টাকা।

মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ উপলক্ষ্যে ২৯ বিজিবির সদর দপ্তরে প্যারেড গ্রাউন্ডে এক আলোচনা ও সুধি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সুধি সমাবেশে ২৯ বিজিবির অধিনায়ক লে:কর্ণেল কোরবান আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রংপুর রিজয়ন সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহরিয়ার আহম্মেদ চৌধুরী পিএসসি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান পিএসসি, ফুলবাড়ী পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক , ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এহেতেশাম রেজা, সিনিয়র জুডিশিয়াল মেজিষ্ট্রেট আরিফুল ইসলাম, সহকারি পুলিশ সুপার (সার্কেল) ফয়জুর রহমান, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের  পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ফুলবাড়ী থানার ওসি মকছেদ আলী, ফুলবাড়ী জি এম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হারুনুর রশীদসহ বিভিন্ন স্তরের জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যম কর্মিবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য