বিরলের ধান ক্ষেতে রাসায়নিক পদার্থ স্প্রে করায় ব্যাপক ক্ষতি সাধনওয়েব ডেস্কঃ বিরলের পল্লীতে জমি-জমার বিরোধকে কেন্দ্র করে ধান ক্ষেত বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ প্রয়োগের মাধ্যমে প্রতিপক্ষরা নষ্ট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১০ হাজার টাকা। ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার রাণীপুকুর ইউপি’র হালজায় (মাহালতপাড়া) গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দীনের পুত্র আবেদ আলী ও আব্দুল মজিদ এর ১৭০ নং জে এল ভূক্ত হালজায় মৌজার ২৩০৮ নং দাগে ১.৩৫ একর জমিতে থাকা বোরো-২৮ জাতের ধান ক্ষেতের মধ্যে বিষাক্ত রাসায়নিক স্প্রে করে ধান ক্ষেতটি নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের মৃত নশর মোহাম্মদের পুত্র মকবুল হোসেন, তার পুত্র মোমিনুল ইসলাম, মোতাহার হোসেনের পুত্র রফিকুল ইসলাম ও মৃত হামিদুর রহমানের পুত্র মিলন হোসেন এর বিরুদ্ধে।

গত ১৪ এপ্রিল/১৬ বৃহষ্পতিবার মোমিনুল পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে হুমকি প্রদান করে ধান আবাদ করার সাধ মিটাইয়া দিব। ধান আবাদ করেছো ঠিকই কিন্তু ধানের ভাত কপালে জুটতে দিবো না। হুমকি প্রদানের পর ধান ক্ষেতটি রাসায়নিক পদার্থ স্প্রে করার মাধ্যমে রাতের আধারে নষ্ট করে দেয় দূর্বত্তরা। শুক্রবার সকালে আবেদ আলীর লোকজন ধান ক্ষেত নষ্ট দেখতে পায়। এতে প্রায় ১০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে তারা জানায়।

উল্লেখ্য, মোমিনুলদের সাথে আবেদ আলীদের জমি-জমা নিয়ে পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধ নিয়ে আদালতে মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এরই জের ধরে আনুমানিক ২০ শতাংশ জমির ধান নষ্ট করা হয়েছে বলে ধারণা আবেদ আলী ও তার পরিবারের। এ ব্যাপারে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে আবেদ আলীর পরিবারের লোকজন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য