গণধোলাইনিজস্ব প্রতিনিধিঃ সোমবার সকালে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ৫ বছরের শিশু কন্যাকে যৌন হয়রানীর দায়ে এক জনকে গলধোলাই দিয়েছে জনতা।

উপজেলার ৩নং গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের ৫ বছর বয়সী ব্র্র্যাক স্কুলের ছাত্রী শিশু কন্যাকে চেরাগপুর গ্রামের ইমন আলী(২৫) ওই শিশু কন্যাকে প্রলোভন দেখিয়ে মেয়েটির মা ঢাকায় থাকায় সেখানে নিয়ে গিয়ে দেখা করাবে এমন মিথ্যা আশ্বাসে পার্শ্ববর্তী একটি নছিমন গাড়ীতে উঠিয়ে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্পর্শ করে। ওই গ্রামের বাবু ও বখতিয়ার এ দৃশ্য দেখে তার অভিভাবককে খবর দেয়।

এ সময় উত্তেজিত জনতা যৌন হয়রানীকারীকে দড়ি দিয়ে বেঁধে গণধোলাই দেয় বলে ৩নং গোলাপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম-পুলিশ মোঃ মোখলেছার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান- বাজার থেকে ইউনিয়ন পরিষদে এনে এখানেও বেঁধে রাখা হয়। পরে মেয়েটির অভিভাবক ও ছেলের অভিভাবক স্থানীয় শালিসের মাধ্যমে অভিযুক্তকে ছেড়ে দেয়।

এ ঘটনায় ওই গ্রামের বসবাস করা সাবেক উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শেফালী বেগম অভিযোগ করে জানান- তারা কিসের স্বার্থে যৌন হয়রানীকারীকে প্রশাসনের নিকট সোপর্দ না করে স্থানীয়ভাবে অভিযুক্তকে ছেড়ে দিয়েছে। এ বিষয়ে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা মোঃ তৈয়বুর রহমানের মুঠেফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- ওই ছেলের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীসহ অসামাজিক কাজের একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য