তিস্তা নদীতে ১ বৃদ্ধের সলিল সমাধিকুড়িগ্রামের রাজারহাটে তিস্তা নদী পারাপারেরর সময় সুধীর চন্দ্র বর্ম্মন (৬০) নামের এক ব্যাক্তি সলিল সমাধি হয়েছে।  নিখোঁজের ৪ ঘন্টা পর রংপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স ডুবুরী দল তার লাশ উদ্ধার করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে উপজেলার মন্দির গ্রামে তিস্তা নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ সংরক্ষন নির্মানাধীন প্রকল্পের পাশ দিয়ে হেঁটে নদী পার হওয়ার সময় নদীতে নব্য সৃষ্ট গভীর গর্তে তলিয়ে যান। পরে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে কুড়িগ্রাম ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সে খবর দেয়।

তারা যোগাযোগ করে রংপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স থেকে ডুবুরী দল নিয়ে আসে। রংপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর লিডার আঃ হামিদের নেতৃত্বে রাজারহাট থানার পুলিশের সহযোগীতায় ডুবুরী আঃ মতিন,বেলাল ও ইকবাল আধা ঘন্টা সময় ধরে খোঁজাখুঁজির পর  নিখোঁজ সুধীর চন্দ্র বর্ম্মন এর লাশ ওই গর্ত থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, বাঁধ নির্মান কাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বাহির থেকে বালু না এনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন প্রকার অনুমতি ছাড়াই নদীর ওই স্থান থেকে বেশ কিছুদিন ধরে পলিযুক্ত নিম্নমানের বালু উত্তোলন করে আসায় গর্তের সৃষ্টি হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য