গরুকে রাষ্ট্রমাতা ঘোষণার দাবিতে গুজরাটে ৮ জনের বিষপান, মৃত ১আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতে গরুকে রাষ্ট্রমাতা এবং গরুর গোশতে নিষেধাজ্ঞা জারির দাবিতে এক আন্দোলনকারী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। মোট ৮ আন্দোলনকারী কীটনাশক পান করলেও এ ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। অন্য তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ জানিয়েছে, বিজেপিশাসিত গুজরাটের রাজকোটে গোরক্ষক সমিতি নামে এক সংগঠনের সদস্যরা গরুকে রাষ্ট্রমাতা এবং দেশজুড়ে গরুর গোশতে নিষেধাজ্ঞা জারির দাবিতে বৃহস্পতিবার জেলা কালেক্টর দফতরের সামনে কীটনাশকের বোতল হাতে নিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। এ সময় পুলিশ তাদের থামানোর চেষ্টা করলে গরু রক্ষা সমিতির ৮ সদস্য বিষ খায়। এরপর তাদের দ্রুত সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা চলাকালীন এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। অন্য ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

অন্য একটি সূত্রে প্রকাশ, গোরক্ষা সমিতির সদস্যরা তাদের দাবি মেনে নেয়ার জন্য জেলা কালেক্টরকে ২৪ ঘণ্টার আল্টমেটাম দেন। কিন্তু তাদের দাবি বিশেষ গুরুত্ব না পাওয়ায় আন্দোলনকারীরা কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে।

সহকারী পুলিশ কমিশনার কল্পেশ চাভডা বলেন, মৃত ব্যক্তিকে হিণ্ডা ওয়াম্বাডিয়া নামে শনাক্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনার পরে প্রচুর সংখ্যক গরু রক্ষা সমিতির সদস্যরা সড়কে নেমে বিক্ষোভ দেখায়। সড়ক অবরোধ করে যান চলাচলে বাধা সৃষ্টি করার অভিযোগে পুলিশ ১৮ জনকে আটক করে। রাজকোটের সাবেক কংগ্রেস সংসদ সদস্য কে বাওয়ালিয়া এবং গোসেবা কমিশনের প্রেসিডেন্ট বল্লভভাই কাঠেরিয়া হাসপাতালে গেলে বিক্ষোভকারীরা তাদের হাসপাতাল চত্বরে যেতে বাধা দেয়। পরিস্থিতির দিকে নজর রাখতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য