নবাবগঞ্জে বনের জমিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদনিজস্ব প্রতিনিধিঃ সোমবার দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে চরকাই ফরেষ্ট রেঞ্জ’এর হরিপুর বিটে বড় রঘুনাথপুর মৌজায় দীর্ঘদিন থেকে এলাকার একটি সুবিধাবাদি চক্র বনের ওই জমিতে রোপন করা গাছের চারা ধ্বংস করে অবৈধ দখলে নিয়ে গড়ে তোলে স্থাপনা।
[ads2]
এ বিষয়ে বন বিভাগ একাধিকবার নিষেধ করলেও স্থাপনা সরিয়ে না নিয়ে একের পর এক বনের জমি দখল করে ওই কু-চক্রী মহলটি ৯ একর জমি জবর দখলে নেয়। এদিকে গত সোমবার দিনাজপুর বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক রফিকুজ্জামান শাহ্ সঙ্গীয় ফোর্সসহ এক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বনের জমিতে অবৈধভাবে নির্মিত ৬টি বাড়ীর স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে। চরকাই ফরেষ্ট রেঞ্জ কর্মকর্তা গাজী মনিরুজামান জানান- তারা শুধু স্থাপনাই তৈরি করেনি বিভিন্ন সময় কর্মকর্তাদের হুমকিও দিয়ে আসত।
[ads2]
উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করার সময় চেরাগপুর গ্রামের দখলের সাথে অভিযুক্ত মোঃ আসেক আলী অভিযান কাজে বাঁধা দেয়ায় তাকে আটক করে বন বিভাগ। এ বিষয়ে হরিপুর বিট কর্মকর্তা মোঃ আঃ মান্নান জানান- হরিপুর বিটের জমি দখলের ঘটনায় আসেক আলীর বিরুদ্ধে গুরুত্বর অভিযোগ ও তার বিরুদ্ধে বন আইনে একাধিক মামলা রয়েছে। সহকারী বন সংরক্ষক রফিকুজ্জামান শাহ্ জানান- অভিযান পরিচালনা করা হলে বনের ৯ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে।
[ads1]
এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদের ভাই চেয়ারম্যান মোঃ শাহিনুর রহমান জানান- বন বিভাগের মালী আমিনুল ইসলাম সাড়ে ৪ লাখ টাকার বিনিময়ে ২ বছর আগে বসতি নির্মানের নির্দেশ দেন। পুনরায় বসবাসকারী লোকদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা দাবী করে আমিনুল। বসবাসকারীদের কাছ থেকে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে দেয়ার নাম করে মোটা অংকের দাবী করে। সেটি না দেওয়ায় অবৈধভাবে ঘরগুলো উচ্ছেদ করা হয়েছে। তবে, এ বিষয়ে সহকারী বন সংরক্ষক রফিকুজ্জামান শাহ্ জানান- আমিনুলের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
[ads1]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য