দায়েশের সঙ্গে আরএসএসের তুলনায় আজাদের ওপর ক্ষুব্ধ হিন্দুত্ববাদীরাআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ কুখ্যাত তাকফিরি সন্ত্রাসী সংগঠন আইএসআইএল বা দায়েশের সঙ্গে আরএসএসের তুলনা করায় কংগ্রেস নেতা গুলাম নবী আজাদের ওপর তীব্র ক্ষুব্ধ হয়েছে হিন্দুত্ববাদীরা।[ads1]

আজ (সোমবার) ভারতীয় সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভা এ ইস্যুতে তীব্র গোলযোগ সৃষ্টি হয়। বিজেপি নেতা এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি আজ সংসদে গুলাম নবী আজাদকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করেন। এসময় রাজ্যসভার বিরোধীদলীয় নেতা গুলাম নবী তার বক্তব্যের সিডি দেখান এবং জমিয়তের সভায় দেয়া বক্তব্যের গুরুত্বপূর্ণ অংশ পড়ে শোনান। আজাদ কার্যত পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দাবি করেন, তার বক্তব্যে তিনি ভুল কী বলেছেন? মিডিয়ায় তার বক্তব্যকে বিকৃত করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন গুলাম নবী আজাদ।[ads1]

একটি সূত্রে প্রকাশ, রাজ্যসভায় গুলাম নবী আজাদকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করার পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে দৃষ্টি আকর্ষণী প্রস্তাব আনতে পারেন বিজেপি এমপিরা। যদিও আজাদ আজ চ্যালেঞ্জ করে বক্তব্য দেয়ার পরে বিজেপি কিছুটা হলেও এই ইস্যুতে পিছু হটেছে বলে মনে করা হচ্ছে।[ads1]

শনিবার দিল্লিতে জমিয়তে ওলামায়ে হিন্দের এক সমাবেশে কংগ্রেস নেতা গুলাম নবী আজাদ আইএসআইএল এবং আরএসএসকে একইরকম বিপজ্জনক বলে মন্তব্য করেন। গুলাম নবী আজাদ বলেন, ‘আমরা মুসলিমদের মধ্যে এমন লোক দেখতে পাই যারা মুসলিম দেশগুলো ধ্বংসের কারণ হয়েছে। এদের পিছনে কিছু শক্তি রয়েছে। মুসলিমরা কেন এতে শামিল হচ্ছে, কেন এতে ডুবতে যাচ্ছে? এজন্য আমরা আইএসআইএল-এর মতো সংগঠনকে সেরকম বিরোধিতা করি যেরকম আরএসএসকে করে থাকি।’[ads2]

কংগ্রেস নেতার এ ধরণের বক্তব্যে বেজায় চটেছে আরএসএস। তাদের সাধারণ সম্পাদক ভৈয়াজি যোশী এই বিবৃতিকে কংগ্রেসের বৌদ্ধিক দেউলিয়াপনা বলে আখ্যা দিয়েছেন। বিজেপি’র মহাসচিব কৈলাস বিজয়বর্গীয় গুলাম নবী আজাদকে কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট ‘সোনিয়া গান্ধীর গুলাম’ বলে আখ্যা দিয়েছেন।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যাচ্ছে দেখেলেই কংগ্রেস নেতারা আরএসএস আতঙ্কে ভোগেন। আরএসএস সন্ত্রাসবাদী সংগঠন নয়।’[ads2]

কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং অবশ্য গুলাম নবী আজাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি আজাদের চেয়ে একধাপ উপরে উঠে আরএসএস এবং আইএসআইএলকে ‘একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ’ বলে মন্তব্য করেছেন।

কংগ্রেসের অন্য নেতা মনিশ তিওয়ারি অবশ্য খানিকটা সতর্ক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেছেন, ‘আরএসএস দেশের একটি সমস্যা, যদিও আইএসআইএল সারা পৃথিবীর মানবতার জন্য বিপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য