‘ভারত-প্রেম’-এর কারণে আফ্রিদিকে উকিল নোটিশস্পোর্টস ডেস্কঃ কথাটা কেন বলেছেন তিনিই ভালো জানেন। হয়তো ভদ্রতা করে বলা, বেড়াতে গিয়ে অতিথিরা যেমনটা বলে গৃহকর্তাকে। হয়তো মন জোগাতেই বলেছেন। হয়তো পরিস্থিতিকে শান্ত করতে বলেছেন। কিন্তু ‘পাকিস্তানের চেয়ে বেশি ভালোবাসা ভারতে পেয়েছি’—শহীদ আফ্রিদির এই মন্তব্য পাকিস্তানের অনেকেই হজম করতে পারছে না। পাকিস্তান অধিনায়ককে উকিল নোটিশও পাঠানো হয়েছে। নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে আফ্রিদিকে।
[ads1]
দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কের টানাপোড়েন, পাকিস্তানের ভারত সফরের অনিশ্চয়তা, বিশ্বকাপ বয়কটের আশঙ্কা—এসব পেরিয়ে আফ্রিদির দল ভারতে এসেছে গত পরশু। স্বাভাবিকভাবেই ভারতে আসলেই তাঁরা অনিরাপদ বোধ করেন কি না, এমন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। এর উত্তর দিতে গিয়ে আফ্রিদি বলে বসেন, এখানে সব সময়ই মানুষদের ভালোবাসা পেয়েছেন। এমনকি পাকিস্তানেও নাকি এমন ভালোবাসা পাননি।
[ads1]
আফ্রিদির কথাটাই ক্ষোভের আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে পাকিস্তানে। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমে তাঁকে নিয়ে অনেক নেতিবাচক মন্তব্য করা হচ্ছে। এটিকে দেখা হচ্ছে ‘অযাচিত ভারত-প্রেম’ হিসেবে। এবার জুডিশিয়াল অ্যাকটিভিজম প্যানেল নামের একটি পাকিস্তানের লাহোরভিত্তিক একটি সংগঠন লিগ্যাল নোটিশও পাঠাল। সংগঠনটির বক্তব্য, আফ্রিদির মন্তব্য পুরো পাকিস্তানের আবেগকে আহত করেছে।[ads1]

১৫ দিনের মধ্যে আফ্রিদিকে এ ব্যাপারে জবাব দিতে বলা হয়েছে। তা না হলে নেওয়া হবে আইনি পদক্ষেপ। পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, রাজনৈতিক মন্তব্য না দিয়ে আফ্রিদি যেন ক্রিকেটে মন দেন।[ads2]

দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা অবশ্য ​এটিকে নিয়ে এত মাতামাতি, শোরগোল করার বিপক্ষে। এটিকে তাঁরা ভদ্রতা করে বলা কথার কথা হিসেবেই নিয়েছেন। তা ছাড়া এই কথাটিকে ‘ইস্যু’ বানানো দলের জন্য নেতিবাচক প্রভাব বয়ে আনবে বলেও তাঁদের মত। অবশ্য সাবেকদের আরেকটি অংশ মনে করেন, আফ্রিদির বিরুদ্ধে তদন্ত হওয়া উচিত, কেন তিনি এমনটা বললেন।
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য