মুসলমান ছাত্রদের হেনস্তা করার পথ করেছে এফবিআইআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মার্কিন অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা এফবিআই স্কুল ছাত্রদের ওপর বিশেষ নজরদারি এবং সম্ভাব্য উগ্রবাদীদের বিষয়ে তথ্য দেয়ার জন্য দেশটির উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছে। এফবিআই’র এ পদেক্ষপে দেশটির মুসলমান ছাত্ররা অহেতুক হয়রানির শিকার হবে বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন মার্কিন অনেক শিক্ষাবিদ।

এফবিআই’র দিক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আমেরিকার ভেতর উগ্রবাদী তৎপরতা চালানোর লোক খুঁজে বের করার জন্য উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রদের রিক্রুট করা হতে পারে। এফবিআই দাবি করছে, এ ধরনের কাজের জন্য উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রদের উপযুক্ত বলে মনে করা হয়।

আমেরিকার জন্য সম্ভাব্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে এমন আচরণ কোনো ছাত্রের মধ্যে দেখা যায় কিনা সে দিকে নজর রাখার জন্য শিক্ষকদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছে এফবিআই। ‘বিদ্যালয়ে সহিংস উগ্রতা প্রতিরোধ’ নামের এ কর্মসূচির আওতায় এটি করা হবে। তবে, ছাত্রদের মধ্যে কী ধরনের আচরণ দেখলে সতর্ক হতে বলা হয়েছে তার কোনো পরিষ্কার রূপরেখা দেয়া হয় নি।

যে আচরণকে সন্দেহজনক বলে এফবিআই ইঙ্গিত দিচ্ছে সে ধরনের আচরণ কিশোর বা তরুণ যে কোনো ছাত্র বিশেষ করে মুসলমান ছাত্রদের মধ্যে দেখা যেতে পারে বলে অনেক শিক্ষাবিদ ধারণা করছেন।

নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অরুণ কুন্ডন্যানি বলেছেন, কার্যত এফবিআই’র নির্দেশনার কারণে মুসলমান ছাত্রদের ওপরই বিশেষভাবে নজর রাখা হবে। আদর্শ নিয়ে মত প্রকাশ করা এবং সহিংস অপরাধী তৎপরতার মধ্যে তেমন কোনো পার্থক্য এফবিআই’র দিক নির্দেশনায় রাখা হয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, এ ধরনের কর্মসূচি সেকেলে সামাজিক তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে এবং এসব তত্ত্বের যথার্থতা প্রমাণ করা যায় নি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য