জরিমানানিজস্ব প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে পশ্চিম মোগরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চার ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ এনে সহকারি শিক্ষককে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. বজলুর রশীদ ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক ও তাঁর অনুগত এক ব্যক্তিকে প্রত্যেকের বিশ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন।

এসআই নাজির হোসেন জানান, ইউএনও এর নির্দেশে ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি সকলের সাথে কথা বলে জানতে পারেন, প্রধান শিক্ষক আ. রাজ্জাক আ. লীগ নেতা হওয়ায় ঠিকমতো বিদ্যালয়ে যাননা। ছাত্রীদের উপবৃত্তির টাকাও আত্মসাত করেছেন। এসব ঘটনায় ফয়জুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আ. রাজ্জাক পরিকল্পিতভাবে ফয়জুর রহমানকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা করেন।
আ. রাজ্জাক তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

ইউএনও বজলুর রশীদ জানান, সকল তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে আ. রাজ্জাকের বিরুদ্ধে ফয়জুর রহমানকে ফাঁসানোর সত্যতা পাওয়ায়  প্রধান শিক্ষক আ. রাজ্জাক এবং তাঁর অনুগত ব্যক্তি গোলাম হোসেনকে জরিমানা করা হয়েছে বলে ইউএনও বজলুর রশীদ জানান।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য