দিনাজপুরে ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির গণশুনানি অনুষ্ঠানস্টাফ রিপোর্টার ॥ জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ মাহবুব আলী মুয়াদ বলেন সরকারি খরচে আইনী সহায়তা পাওয়া মানে এই নয় যে, অহেতুক মামলা করা। কিছু মামলা আমরা বাদী-বিবাদীকে একত্রিত করে আপোষ নিষ্পত্তি করতে পারি। সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সরকারি খরচে অসহায় মানুষের পাশে থেকে বিচার প্রাপ্তির মাধ্যমে ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। বিশেষ করে এই ইউনিয়নের আদিবাসী সাওতাল জনগোষ্ঠীকে সরকারি খরচে আইনী সহায়তা প্রদান করার যে ব্যবস্থা রয়েছে সে ব্যাপারে তাদের সচেতন করতে হবে।

বুধবার দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার, ৬নং রনগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে, সরকারি খরচে আইন সহায়তা বিষয়ক প্রাতিষ্ঠানিক গণশুনানী অনুষ্ঠান, এইড-কুমিল্লা, জাস্টিস ফর অল-দিনাজপুর প্রকল্প এবং জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি দিনাজপুর, জাতীয় আইন সহায়তা প্রদান সংস্থা’র যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, প্রানতোষ চন্দ্র দেব শর্মা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটি ও ৬নং রনগাঁও ইউনিয়ন, বোচাগঞ্জ উপজেলা, দিনাজপুর-এ আয়োজিত গণশুনানি অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন।

ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও রণগাঁ ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান প্রানতোষ চন্দ্র দেব শর্মার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বদন মুরমু, চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আদিবাসী ফোরাম, ৬নং রনগাঁও ইউনিয়ন, বোচাগঞ্জ উপজেলা, দিনাজপুর। স্বাগত বক্তবে ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটি’র চেয়ারম্যান বলেন, সরকার যে, সরকারি খরচে দরিদ্র জনগণকে আইনী সহায়তা প্রদান করিতেছে তা আমাদের সকলের জানা নেই, এইড-কুমিল্লা, জাস্টিস ফর অল-দিনাজপুর প্রকল্প কাজ করার ফলে আমরা এ বিষয়ে জানতে পারি কিন্তু তাহা কিছু লোকের মধ্যে সীমাবদ্ধ এবং আমাদের যে ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটি রয়েছে এখন সেগুলোর সচল হয়েছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে এলাকার দরিদ্র নারী-পুরুষ, গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ, সমাজ সেবক, বিভিন্ন সরকারি ও বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও আপাময় জনগন বিশেষ করে নৃ-তাত্বিক সম্প্রদায়ের জনগোষ্টের উপস্থিত ছিলেন। এইড-কুমিল্লা সংস্থা’র, জাস্টিস ফর অল-দিনাজপুর প্রকল্প ও সরকারি খরচে লিগ্যাল এইড সেবা বিষয়ে উপস্থাপন করেন, সংস্থা’র প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মোঃ দেলওয়ার হোসেন, ফাইন্যান্স অফিসার মোঃ সামায়ুন কবির ও ফিল্ড অফিসার মোঃ ফারুক আহম্মেদ।

আলোচনা শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণকারিরা প্রশ্নের মাধ্যমে তাদের বিভিন্ন সমস্যা, কমিটি’র ভুমিকা, কাজের অগ্রগতি  প্রতিশ্রুতি প্রদান ও  সরকারি খরচে লিগ্যাল এইড সেবা ও আইন বিষয়ে উপস্থিত সকলেই অবগত হয় এবং কোথায় কিভাবে আইনী সেবা পাওয়া যাবে তা তারা বিস্তারিত জানতে পারেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য