Fulbari Mapডেক্স রিপোর্টঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউপির পূর্ব রাজারামপুর মাছুয়া পাড়া গ্রামে হরিবাসর ধর্মীয় অনুষ্ঠান করাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের বিরোধ। ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউপির পূর্ব রাজারামপুর গ্রামরে মৃত রাজেন্দ্রনাথ রায় এর পুত্র রশিক চন্দ্র রায়ের থানায় দায়ের করা

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ধর্মীয় অনুষ্ঠান হরিবাসর আগামী ২৭/০২/২০১৬ থেকে ২৮/০২/২০১৬ ইং তারিখ পর্যন্ত ঐ গ্রামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। কিন্তু ঐ গ্রামের মৃত আন্দরু দাস এর পুত্র রবিচন্দ্র দাস, মৃত দীননাথ চন্দ্র রায় এর পুত্র বিমল চন্দ্র রায় (৪৫), মৃত যদুনাথ চন্দ্র রায় এর পুত্র গণেশ চন্দ্র রায় (৫৫) ও মৃত হরেক চাঁদ চন্দ্র দাস এর পুত্র ভবানী চন্দ্র দাস (৫৫) তারা সহ ১৩টি পরিবার ৫ মাস পূর্বে ঐ গ্রামের আরও ২৬ জন পরিবার এক সঙ্গে এই প্রথম বার হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠান হরিবাসর হওয়ার কথা।

কিন্তু ঐ এলাকার উল্লেখ্য ব্যক্তিরা ও কিছু কু-চক্রী মহলের পরামর্শে ২৬টি পরিবারকে বাদ দিয়ে ধর্মীয় অনুষ্ঠান হরিবাসর করার কথা। গত ০৮/০২/২০১৬ ইং তারিখে সকাল ১০টায় বিভিন্ন জায়গায় উক্ত ব্যক্তিরা বিভেদ সৃষ্টি করার জন্য ও হরিবাসর যাতে না হয় সেই জন্য তারা ২৬টি পরিবারকে বাদ দিয়ে হরিবাসর করার সিদ্ধান্ত নেয়। উক্ত অনুষ্ঠানে কোন ঘটনা ঘটলে ঐ গ্রামের ২৬টি হিন্দু পরিবার কোনভাবে দায় দায়িত্ব নিবেন না।

তারা বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করছে। অভিযোগ কারী রশিদ চন্দ্র অভিযোগে জানান, যেহেতু হিন্দু সম্প্রদায়ের একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান সেই অনুষ্ঠানটি সকলে মিলে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেখানে হিন্দু ধর্মীয় অনুষ্ঠান করতে গিয়ে বিভেদ সৃষ্টি হতে পারে মর্মে গ্রামের মুসলমানেরাও আশঙ্কা করছে। বিভিন্ন মহল বলছে দু’পক্ষে হরিবাসর করলে উভয়ের মধ্যে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকবে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বিভিন্ন মহল বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য