Jailচিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দুই দিন দুই রাত হাজতবাসের পর অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসলো থানায় আটক দুই সন্তানের জননী ও দুই সন্তানের জনক প্রেমিক যুগল। পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের এম,এল,এস,এস ও দুই সন্তানের জনক আল-আমিন দীর্ঘদিন ধরে চিরিরবন্দর কারেন্টহাট বাজারের মোকছেদুল হকের স্ত্রী মোসলেমা বেগম (২২) এর  সাথে বিয়ের প্রলোভনে দৈহিক মেলামেশা করতো।

গত মঙ্গলবার রাতে প্রেমিক আল-আমিন প্রেমিকাকে কৌশলে ঢাকা পাঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে বিষয়টি এলাকাবাসী জানতে পেরে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ চিরিরবন্দর উপজেলা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস চত্বর হতে প্রেমিক যুগলকে আটক করে। আটকের পর আল-আমিনকে থানা হতে ছাড়িয়ে নিতে রাতভর দেন-দরবার নিয়ে টানা হেচড়া চলে।

কিন্তু প্রেমিকা মোসলেমা শক্ত অবস্থানে থাকায় অবশেষে দুই দিন দুই রাত হাজতবাসের পর এক লক্ষ টাকা দেনমোহরে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের বিয়ে হয়।

এ বিষয়ে চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ আনিছুর রহমান জানান, আল-আমিন দীর্ঘদিন ধরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দৈহিক মেলামেশা করতো। উভয় পক্ষের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে বিয়ের কাজ সম্পন্ন হয়।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য