Songor৩

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌর এলাকায় জমি জমা বিরোধের জের ধরে উভয় পক্ষের সংঘর্ষে  উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।গতকাল শুক্রবার সকাল ৭টায় পৌর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের চকসাহাবাজপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, চকসাহাবাজপুর গ্রামের মৃত ইয়াছিন আলীর ছেলে আশরাফুল আলম সবুজ(৩৫), শামসুল আলমের ছেলে হিল্লোল(৩২), আব্দুল জোব্বারের ছেলে ফেরদৌস(৫০), ফারুক(৪২), ফিরোজ(৩৫), মৃত রহিচ উদ্দিনের ছেলে সাবেক কাউন্সিলর আইয়ুব আলী(৫৮), কফিল উদ্দিনের ছেলে ফজলুর রহমান(৫০) ও জহুরুল হক(৬০) তাদেরকে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে আইয়ুব আলী ও ফারুককে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পঙ্গু বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই ঘটনায় ওইদিন সকালে ফুলবাড়ী থানা ওসি মকছেদ আলীর নেতৃত্বে ওসি তদন্ত আব্দুর রহিম, এস আই শাহআলম সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে, উভয় পক্ষকে শান্ত থাকার নির্দেশ দেন।

গ্রামবাসীরা জানায় চকাসাহাবাজপুর গ্রামের মৃত ইয়াছিন আলীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম সবুজ ও ইয়াকুব আলীর ছেলে মোরশেদ আলম রুবেলদের সঙ্গে, একই এলাকার আব্দুল জোব্বারের ছেলে ফিরোজ হোসেনদের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিলো। এরই মাঝে গতকাল শুক্রবার সকাল ৭টায় চকসাহাবাজপুর গ্রামের  সাবেক কাউন্সিলর আইয়ুব আলীর নেতৃত্বে আব্দুল জোব্বারের ছেলে ফিরোজ হোসেন, ফারুক হোসেন, ফেরদৌস আলম, কফিল উদ্দিনের ছেলে ফজলুর রহমান, জহুরুল হকসহ তাদের ল্কোজন নিয়ে আশরাফুল ইসলাম সবুজের জমিতে বোরো ধানের বীজ চারা উঠার জন্য যায়। খবর পেয়ে মৃত ইয়াছিন আলীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম সবুজ, শামসুল মন্ডলের ছেলে হিল্লোল(৩২) সহ তাদের লোকজন নিয়ে বাধা দিতে যায়। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে। এই ঘটনার পর থেকেই ওই এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য চকসাহাবাজপুর গ্রামে ৭একর ৪৮ শতক জমি নিয়ে আশরাফুল ইসলাম গংদের সঙ্গে আব্দুল জোব্বার গংদের দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো। এই বিরোধে ইতিপুর্বেও কয়েকদফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে করে চকসাহাবাজপুর গ্রামবাসীরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। গতকাল শুক্রবার আবারও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলো।

ইয়াকুব আলীর ছেলে মোরশেদ আলী রুবেল বলেন, আব্দুল জোব্বার গংদের সঙ্গে চকসাহাবাজপুর মৌজার ২৫টি ও বারোকোনা মৌজার ১টি দাগে ৭একর ৪৮শতক জমি নিয়ে উচ্চ আদালতে মামলা চলছে। ওই জমিতে আমরা কেউই যাচ্ছিনা। কিন্তু হঠাৎ গতকাল শুক্রবার সকাল ৭টায় আব্দুল জোব্বারের ছেলেরা আমাদের নিজস্ব চকসাহাবাজপুর মৌজার ৪০,৪১,৪২ ও ৪৩ দাগের জমিতে গিয়ে বোরো ধানের বীজতলা থেকে বীজ চারা উঠাতে শুরু করে। এ সময় আশরাফুল ইসলাম সবুজ ও সবুজের ভাতিজা হিল্লোল বাধা দিতে গেলে তারা তাকে মারডাং শুরু করে। এতেই উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

বার্তা প্রেরকঃ মোঃ রজব আলী, ফুলবাড়ী দিনাজপুরনিউজ প্রতিনিধি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য