হরিপুরে ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের চলছে দৌড়ঝাআসন্ন ইউপি নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ৬ ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে।এবারেই প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন দলগতভাবে দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত হবে। এই মর্মে প্রার্থীতার জন্য দলের মনোয়ন নিশ্চিত করতে বেশ তৎপর হয়ে উঠেছে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা মাঠ পর্যায়ে জনসংযোগের পাশাপািশ দলীয় মনোনয়ন পেতে নিজ নিজ দলের তৃণমূল থেকে হাইকমান্ড নেতাদের সাথে এরই মধ্যে জোরেসোরে তবদীর করতে শুরু করেছে।

তফশীল ঘোষনা না হলেও আসন্ন ইউপি নির্বাচনে একই দল থেকে একাধিক প্রার্থী এরই মধ্যে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা চালিয়ে দলীয় নেতাকর্মীসহ জনসাধারণের সমর্থন পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। প্রার্থীরা তাদের নির্বাচনী এলাকার পাড়া-মহল্লায় বিভিন্ন ধর্মীয় ও ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানে গিয়ে নানা রকম উন্নয়নমূলক কাজের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিজেদের পক্ষে সমর্থন আদায়ে চেস্টা করছে।

দলীয় নেতাকর্মীরা তাদের নিজনিজ দলীয় প্রার্থী নিয়ে ভাবলেও নিরপক্ষ ভোটাররা দূর্নীতিগ্রস্থ ও বিতর্কিত কর্মকান্ডের প্রার্থীদের আর ক্ষমতায় দেখতে চাই না। তবে তৃণমূলের সাথে যোগাযোগ রেখে যারা এলাকার উন্নয়ন করতে চান তাদেরই এবার ভোট দিতে চান তারা।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ৬ ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকায় রয়েছেন ১নং গেদুড়া ইউনিয়নে সাবেক উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপি’র সদস্য তরিকুল ইসলাম, ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি জাহিরুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান মনিরুজ্জান, বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ, আওয়ামীলীগম নেতা ইউনুস আলী, জামায়াতের ইউনিয়ন আমির মোশারফ হোসেন।

২নং আমগাঁও ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান ইসমাঈল হোসেন, বিএনপি নেতা জাকির হোসেন বিএসসি, বসির উদ্দীন, হবিবর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি শামসুল হুদা তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, আ’লীগ নেতা উমাকান্ত ভৌমিক, উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক শরিফ উদ্দীন সরকার ও সাবেক চেয়ারম্যান বদরুল ইসলাম।

৩নং বকুয়া ইউনিয়নে, সাবেক ছাত্রলীগের জেলা সহ-সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী তরুণ নেতা আনিসুজ্জামান শান্ত, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাসেম বর্ষা, উপজেলা ছাত্রদলের আহব্বায় শফিকুল ইসলাম, বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি আবু তাহের।

৪নং ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি, সাধারণ সম্পাদক অনীল চন্দ্র ভৌমিক, আ’লীগ নেতা মফিজ উদ্দীন, আব্দুল বারি বুলবুল, ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক রেজুয়ানুল হক বিশ্বাস মন্টু, বিএনপি নেতা আহসান হাবীব চৌধুরী, থানা বিএনপি’র সদস্য হাফিজ উদ্দীন আহম্মেদ, ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি মাহাবুব আলম, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি খায়রুল ইসলাম।

৫নং হরিপুর সদর ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, সাবেক আ’লীগের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক এসএম আলমগীর, সাবেক ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান, উপজেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান মংলা এবং ৬নং ভাতুরিয়া ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি আব্দুর রহিম, উপজেলার আ’লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক সাহাজান আলী, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ রিয়াজুল ইসলাম সরকার, ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ মিলার, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক করিমুল হক ও রফিজুল ইসলাম প্রমূখ।

এদিকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র উপজেলার নেতারা বলেছেন, দলের মধ্যে সম্ভাব্য একাধিক প্রার্থী থাকতেই পারে, তাকে কোন্দল বলা যাবে না। প্রার্থী যতই থাকুক বাছাই করে প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে প্রার্থী চুড়ান্ত করা হবে। আর বিদ্রোহীদের কোন সুযোগ য়ো হবে না।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য