পাকিস্তানে বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার মূল হোতা আটকআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পাকিস্তানের বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার মূল হোতাকে আটক করা হয়েছে। ওয়াহিদ আলী ওরফে আরশাদ নামের দেশটির শীর্ষস্থানীয় সন্ত্রাসীকে নওশেরওয়া থেকে গত সপ্তাহে আটক করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে আজ (বুধবার) পাকিস্তানের একটি ইংরেজি দৈনিক এ খবর দিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, দাঁড়ি কেটে ট্যাক্সি নিয়ে তোরখামের পাক-আফগান সীমান্ত দিয়ে পালানোর চেষ্টার সময় তাকে আটক করা হয়। আটক করতে সামান্য দেরি হলেই ৩০ বছর বয়সী এ শীর্ষ সন্ত্রাসী পালিয়ে যেত।

প্রাথমিক জবানবন্দিতে ওয়াহিদ আলী স্বীকার করেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা চালানোর জন্য ছয় মাস আগে থেকেই পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। আফগানিস্তানের আচিন জেলায় তালেবান কমান্ডার খলিফা ওমর মানসুর ওরফে ওমর নারের ঘাঁটিতে এ প্রস্তুতি নেয়া হয়।

পরিকল্পনা বাস্তবায়নে খলিফা মানসুর তাকে ১০ লাখ রুপি দিয়েছে। হামলা পরিকল্পনা বাস্তবায়নে এবং অস্ত্র ও গোলাবারুদ কেনার জন্য এ অর্থ দেয়া হয়। পাক নিরাপত্তা বাহিনী এর আগে এ হামলায় জড়িত আরো পাঁচ ব্যক্তিকে আটক করেছে।

গত মাসের ২০ তারিখে খায়বার পাকতুনখোয়া প্রদেশের চরসাদ্দা শহরের বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে সন্ত্রাসীদের হামলায় অন্তত ২২ জন নিহত ও ৬০ জন আহত হয়।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য