এক্স-রে মেশিনচিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একমাত্র এক্স-রে মেশিনটি কর্তৃপক্ষের অবহেলায় দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে বিকল হয়ে পড়ে থাকায় চরম ভোগান্তীতে পড়েছে রোগীরা ।

পরীক্ষা নিরীক্ষার অভাবে চিকিৎসা  না পেয়ে ফেরত হওয়া অনেক রোগীই অভিযোগ করে বলেন, চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে গেলে চিকিৎসকরা কোন প্রকার পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়াই ব্যবস্থাপত্র  দিয়ে  থাকেন।

নাম  প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মচারী জানান, দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে হাসপাতালের  এক্স-রে মেশিনটি অকেজো হয়ে  পড়ে আছে। মাঝে মাঝে মেরামত করা হলেও টেকনোলোজিষ্ট (রেডিওগ্রাফী) দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  ডিপুটেশনে থাকায় সে’কদিনও বন্ধ থাকে।

ফলে চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এলাকার দরিদ্র ও  অসচ্ছল রোগীরা। এলাকাবাসীর মৌখিক  অভিযোগের  প্রেক্ষিতে গত ২০ জানুয়ারী সরেজমিন হাসপাতালে গেলে রেডিওগ্রাফী কক্ষটি অনেক আগে থেকেই সীলগালা করে রাখা হয়েছে বলে  মনে হয়।

এ ব্যপারে চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শহিদুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে হাসপাতালে পাওয়া যায়নি। পরে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেফোন রিসিভ করেননি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য