ইরানকে বিপদে ফেলতে তেলের দাম কমানো হয়েছেআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পার্লামেন্ট স্পিকার ড. আলী লারিজানি বলেছেন-পরমাণু সমঝোতা থেকে ইরান যাতে লাভবান হতে না পারে, সে লক্ষ্যে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে দিয়েছে সৌদি আরব। মসজিদের ইমামদের এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেছেন।

ড. লারিজানি আরও বলেছেন, পরমাণু ইস্যুতে একটি সমঝোতায় পৌঁছা জরুরি ছিল। ইরান পরমাণু প্রযুক্তির অধিকারী হওয়া সত্ত্বেও পরমাণু অস্ত্র তৈরি করবে বলে তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে যখন আলোচনা চলছিল তখন সৌদি আরবের মতো কয়েকটি দেশ আলোচনা বানচালের চেষ্টা করেছে। পরমাণু ইস্যুতে যাতে কোনো সমঝোতা হতে না পারে সেজন্য কয়েকটি দেশকে নানাভাবে উসকানি দিয়েছে রিয়াদ।

ইরানের সংসদ স্পিকার আরও বলেছেন, ইরানের পরমাণু আলোচনা চলাকালেই সৌদি আরব বিশ্ব বাজারে তেলের দাম কমানোর ব্যবস্থা করে এবং তেলের দাম ১১০ ডলার থেকে ৩০ ডলারে নেমে আসে। ইরান যাতে পরমাণু আলোচনা ও সমঝোতা থেকে কোনো ধরনের লাভবান হতে না পারে সে লক্ষ্যেই এ কাজ করেছে সৌদি আরবের রাজতান্ত্রিক সরকার।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য