পলাশবাড়ীর হোসেনপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে সম্ভাব্য স্বতন্ত্র প্রার্থী টিটুআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে পৌর নির্বাচন না থাকলেও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচনী হাওয়া শুরু হয়েছে। যদিও ইউপি নির্বাচনের তাফসীল এখনো ঘোষিত হয়নি। তদুপরি বিভিন্ন ইউনিয়নের সম্ভাব্য প্রার্থীরা আগাম প্রস্তুতি গ্রহণে উৎসাহী হয়ে উঠেছেন। পলাশবাড়ী উপজেলা ৯টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। তার মধ্যে ২নং হোসেনপুর ইউনিয়নে আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীরা বেশ তৎপর। বিশেষ করে সেখানে সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকায় নতুন মুখ বেশী। এরা ইতোমধ্যেই আগাম প্রস্তুতির পাশাপাশি ব্যক্তিগত ইমেজ গড়ে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গণসংযোগে অংশ নিচ্ছে। ভোটারদের মন জয় ও আঞ্চলিক প্রভাব বিস্তারের জন্য ব্যক্তিগত পরিচিতি তুলে ধরছে। দান খয়রাত, শীতবস্ত্র বিতরণ ও অন্যান্য আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। উন্নয়ন মূলক কাজের প্রতিশ্র“তি দিচ্ছে। উন্নয়ন বঞ্চিত মানুষের সুখ-দুঃখ খতিয়ে তালিকা তৈরির কাজেও মনোযোগী হচ্ছে। সম্ভাব্য প্রার্থী নতুন মুখের মধ্যে তৌফিকুল আমিন মন্ডল টিটু এই প্রজন্মের অহংকার, শিক্ষিত, কর্মঠ, পরোপকারী, নির্লোভ, নিরহংকার, নিষ্ঠাবান প্রকৃতির এক তরুণ সমাজসেবক হিসেবে প্রচারনাভিযানে অনেক এগিয়ে রয়েছেন। তৌফিকুল আমিন মন্ডল টিটু উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের মধ্যরামচন্দ্র গ্রামের মোঃ রহুল আমিন মন্ডল সাজু মাষ্টারের পুত্র। টিটু’র বড়বোন পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদের (ভারপ্রাপ্ত) চেয়ারম্যান কোহিনুর আকতার বানু শিফন। বর্তমানে টিটু হাঁসবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি। তিনি বলেন, হোসেনপুর ইউনিয়নসহ উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা, মন্দির ও ইসলামী জলসা, বিবাহ, চিকিৎসায় নিজস্ব অর্থ অনুদান, গ্রামে-গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগসহ এলাকার উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন এবং হোসেনপুর ইউনিয়নসহ উপজেলায় একজন দানশীল ব্যক্তি হিসেবে পরিচিতি গড়ে তুলেছেন। তার এই পথচলা ও সামাজিক কাজে সহযোগিতার জন্য তিনি সকলের দোয়া প্রার্থনা করছেন। তিনি আরো বলেন, অবহেলিত হোসেনপুর ইউনিয়নবাসীর ভোটাররা তাদের পবিত্র ভোট প্রদানের মাধ্যমে আমাকে নির্বাচিত করলে আমি আধুনিক ও দূর্ণীতিমুক্ত মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলব ইনশাআল্লাহ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য