000ফুলবাড়ী(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের, ফুলবাড়ী-দিনাজপুর মহাসড়কের আমবাড়ী বাজারের নিকট ইছামতি নদীর উপর বেইলী ব্রীজটি মেরামত করার ৬ মাসের মাথায় আবারও পাথরের ট্রাকসহ নদীতে ভেঙ্গে পড়েছে।

বুধবার দিবাগত রাত ১০টা ৪৫মিনিটে পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী ঢাকা মেট্রো-ট১১-৫৪১৮ ও ঢাকা মেট্রো-ট১১-৭৫৩১ নং পাথর বোঝাই ট্রাক ২টি  বেইলী ব্রীজটি পার হওয়ার সময় বিকট শব্দে ভেঙ্গে পড়ে।
news_pic_phulbari_dinajpur07-01-2016 pic3
এদিকে একমাত্র বেইলী ব্রীজটি ভেঙ্গে পড়ায় দিনাজপুর হতে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াতকারী যানবাহন ও যাত্রীগণ চরম বিড়ম্বনার স্বীকার হচ্ছে।

স্থানীয় চা দোকানদার শাহাদত আলী ও শ্রমিক নেতা শাহনেওয়্জা বলেন রাত ১০টা ৪৫ মিনিটের সময় বিকট শব্দে বেইলী ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় আশপাশের  বাসিন্দারা ছুটে আসে ব্রীজটির নিকট। সেখানে গিয়ে দেখা যায় দুটি পাথরের ট্রাকসহ ব্রীজটি ভেঙ্গে পড়লেও কোনো প্রকার হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।
news_pic_phulbari_dinajpur07-01-2016 pic2
তবে ট্রাকের হেলপার শ্রী রিপন ও  মোঃ রোকন সামান্য আহত হয়েছে। তাদেরকে স্থানীয় বাসিন্দারাই উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ট্রাকচালক হাবিবুর রহমান জানান সে  তার ১০চাকার ট্রাকটিতে ৯শ সেপ্টিপাথর নিয়ে পঞ্চগড় থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ নতুন ব্রীজে যাচ্ছিলেন। একইভাবে তার পিছনে আর একটি ট্রাক একই স্থান থেকে নতুন ব্রীজে যাচ্ছিলেন। ট্রাক ২টি নিয়ে বেইলী ব্রীজটি পার হওয়ার সময় হঠাৎ ব্রীজটি ভেঙ্গে পড়ে।

সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুরুজ মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ২০১৫ সালের জুন মাসে পাথরের ট্রাক পার হওয়ার সময় ব্রীজটি ভেঙ্গে পড়েছিলো। সে সময় ব্রীজটি ২টি গ্রুপে ভাগ করে মেরামত করা হয়। তার ১টি আবার ও ভেঙ্গে পড়লো। এই ব্রীজটি বেইলী ব্রীজ না দিয়ে প্রচলিত ইট সিমেন্টের ব্রীজ দেওয়া হবে কিনা এ কথা জিজ্ঞেস করলে নির্বাহী প্রকৌশলী কোনো উত্তর দিতে পারেননি।
news_pic_phulbari_dinajpur07-01-2016 pic1
এদিকে বেইলী ব্রীজটি ২টি গ্রপের ১টি ভেঙ্গে যাওয়ায় ১টি অংশ দিয়ে কোনো রকমে যাতায়াত করছে যানবাহনগুলো। সেটিও যেকোনো সময় ভেঙ্গে পড়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দা ও শ্রমিকনেতা শাহনেওয়াজ বলেন এই ব্রীজটি ইতিপুর্বেও কয়েকদাফা ভেঙ্গে পড়েছে, কিন্তু প্রতিপক্ষ স্থায়ী ব্রীজ নির্মাণ না করে পুনরায় বেইলী ব্রীজটি কোনো রকমে মেরামত করায় বার বার ভেঙ্গে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। এজন্য তারা ইছামতি নদীর উপর স্থায়ী ব্রীঝ নির্মাণ করার দাবী জানিয়েছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য