UPEসুবল রায়, বিরলঃ পঞ্চম ধাপে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী গতকাল বুধবার বিরল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১ জনসহ মোট ৬ জন প্রাথী মনোয়নয়ন পত্র প্রত্যাহারের জন্য আবেদন করেছে।

উপজেলা সহকারী রির্টানিং অফিসার মোঃ তকদির আলী সরকার জানান, বিরল উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৯ জন এর মধ্যে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন এর মধ্যে ২ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন এর মধ্যে ১ জন প্রাথী মনোয়নয়ন পত্র প্রত্যাহরের জন্য জেলা রিটার্নিং অফিসারের নিকট আবেদন করেছে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার কারীরা হলেনঃ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিএনপি’ বিদ্রোহী প্রার্থী লিয়াকত আলী, নুর ইসলাম, সুলতান মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিএনপি’র খায়রুল আলম, জাপা’র বারিকুল ইসলাম ও ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদপ্রার্থী বিএনপি’র জিনাত আরা আহম্মেদ।

অবশিষ্ট প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীরা আ’লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক প্রতিমন্ত্রি বাবু সতীশ চন্দ্র রায়ের কনিষ্টপুত্র আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক, ডাঃ মানবেন্দ্র রায় মানব, ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত আ.ন.ম বজলুর রশিদ কালু, জাতীয় পার্টির ড. আনোয়ার হোসেন চৌধুরী জীবন, বিএনপি’র বিদ্রোহী ভিপি হামিদুর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকারম হোসেন ও আবু তালেব।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের সাংবাদিক আব্দুল কুদ্দুস, ১৯ দলীয় জোটের এ, কে, এম আফজালুল আনাম, বিএনপি’র বিদ্রোহী রোস্তম আলী, কৃষক ফেডারেশনের আব্দুল খালেক বকুল।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের বতর্মান ভাইস চেয়ারম্যান লায়লা আরজুমান্দ বানু, স্বতন্ত্র ফিরোজা বেগম সোনা, শাহনাজ পারভীন ও আফরোজা বেগমসহ মোট ১৪ জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দীতার জন্য  রয়েছে। ১৩ মার্চ বৃহষ্পতিবার প্রতীক বরাদ্দ এবং ৩১ মার্চ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য