দিনাজপুরে ফেলানো বর্জ’র উপর ৫ দিনের জরিপডেক্স রিপোর্টঃ দিনাজপুরের শহর ও বাড়ীর আশপাশের ফেলানো বর্জ্য’র উপর ৫দিন ব্যাপী জরিপ চালিয়েছে গবেষনা ও সচেতনতামুলক প্রতিষষ্ঠান ওয়েস টু ক্লিন সংগঠনের কর্মীরা। তাদের জরিপে দাবী করা হয়েছে দিনাজপুর পৌরসভায় প্রতিদিন গড়ে ৩২ দশমিক ৮ টন জৈব আর্বজনা এবং ৩ দশমিক ৯ টন কাগজ ও নানান রকমের নোংরা ঠোঙ্গা-প্যাকেট এবং ১ দশমিক ৬৪ টন প্লাষ্টিকের প্যাকেট পাওয়া যায়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে ওয়েস টু ক্লিন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের কর্মী তামান্না ইসলাম উর্মী। এই  লিখিত বক্তব্যে তারা জানান, গত ২ বছর দিনাজপুর পৌরসভার বিভিন্ন পাড়া মহল্লায়,স্কুল কলেজে ও সরকারী -আধা সরকারী ও এনজিও কার্যালয়ের ফেলে দেয়া বর্জ্যরে উপর গবেষনা চালানো হয়েছে। এখান থেকে প্রাপ্ত তথ্যের মধ্যে অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত হওয়ারমত উপকরন পাওয়া যায়।

চলতি বছর দিনাজপুর পৌরসভা থেকে উৎপাদিত মোট আর্বজনার পরিমান এবং তাতে জৈব ও অজৈব আর্বজনার অনুপাত জানতে ওয়েস টু ক্লিন নামের সংগঠনের কর্মীরা ৫দিন ব্যাপী জরিপ চালায়। তাদের জরিপে দাবী করা হয়েছে দিনাজপুর পৌরসভায় প্রতিদিন গড়ে ৩২ দশমিক ৮ টন জৈব আর্বজনা এবং ৩ দশমিক ৯ টন কাগজ ও নানান রকমের নোংরা ঠোঙ্গা-প্যাকেট এবং ১ দশমিক ৬৪ টন প্লাষ্টিকের প্যাকেট পাওয়া যায়।

তারা জানান, সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে শহরের রাস্তা-ঘাট,ডোবা-নালা-জলাময়ে,ঝোপ-ঝাড়ের মাঝে ফেলানো বর্জ্য গুলো সংরক্ষন করে আলাদা করার ব্যবস্থা করা গেলে প্রত্যেকটি হতে অর্থনৈতিক সুবিধা নেয়া যাবে। কেননা এ সমস্ত পন্য হতে প্রয়োজনীয় বিদুৎ,জৈব সার, রিসাইকেলড পন্য এবং আরো নানান ধরনে মুল্যবান সম্পদ উৎপাদন করা সম্ভব।

শহরের আর্বজনার(বর্জ্য) উল্লেখিত পরিসংখ্যান ব্যবহার করে উদ্দ্যোক্তা এবং সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠান এগিয়ে ্এলে আর্বজনা ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে সঠিক পরিকল্পনা করে ্এ থেকেও সুফল পেতে পারে প্রত্যেক নাগরিক।

সংবাদ সম্মেলনে জানান হয়, বর্জ্য বা আর্বজনা ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহন করে পরিকল্পিত পরিচ্ছন্ন শহর ও বাড়ি যেমন পাওয়া যাবে তেমনি ব্যবসার মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন,বেকারত্ব দুরীকরনসহ নানান ধরনের সুবিধা অর্জন করা সম্ভব।

অফিস-আদালত,কল-কারখানা-ঘরবাড়ী ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ফেলে দেয়া  আর্বজনার(বর্জ্য)’র বিভিন্ন ভাগ পুনঃব্যবহারের মাধ্যমে দেশের আর্থিক উন্নয়নে ভুমিকা রাখতে সক্ষম হবে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তরুন উদ্দ্যোগক্তা মকিদ হায়দার,মুবতাসিম ফুয়াদ,রাহিমুজ্জামান রাফিদ,তাজিন ইসলাম,আবু কায়সার,সাদমান শিহাব,সোয়েব আলী খান,শাহরিয়ার আহম্মেদ,সাফায়েত সাদাত ও প্রিন্স মিম।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য