আওয়ামীলীগ ভোটচুরির যড়যন্ত্র করছে ফুলবাড়ীতে রুহুল কবীর রিজভীফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচীব রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন ২০১৪ সালে ৫ই জানুয়ারী জনগনের ভোটাধিকার হরন করেছে। এজন্য পরবর্তী প্রত্যেকটি নির্বাচনে জনগন তাদেরকে প্রত্যাখান করেছে।

এ জন্য তারা গত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রকাশ্যে ভোট ডাকাতি করেছে। এই পৌরসভা নির্বাচনেও তারা জনগনের কাছে কোন সাড়া না পেয়ে আবারও ভোট ডাকাতি করার যড়যন্ত্র করছে। যদি সুষ্ট নির্বাচন হয় তাহলে ২৩৪টি পৌরসভার মধ্যে ২০০টির অধিক স্থানে বিএনপির প্রার্থীদের বিজয় হবে।

গনতান্ত্রিক পুনুরুদ্ধারের আন্দোলনের অংশ হিসেবে তিনি ফুলবাড়ী সহ সারাদেশের জনগনকে ধানের শীষ মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জানান।

বুধবার বিকেল ৫টায় দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরশহরের যমুনাব্রীজ এর সামনে  ফুলবাড়ী পৌরনির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী শাহাদত আলী সাহাজুল এর নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথীর বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

নির্বাচনী পথসভায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য এজেড এম রেজওয়ানুল হক এর সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল আওয়াল মিন্টু, সাধারন সম্পাদক মুকুর চৌধুরী, সাংগাঠনিক সম্পাদক হাসানুজ্জামান উজ্জল ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

রুহুল কবির রিজভী আরোও বলেন, বর্তমানে দেশে কোন গনতন্ত্র নেই। বিভিন্ন জায়গায় নির্বাচনী প্রচার করতে গিয়ে সরকার সমর্থিত সসস্ত্র সন্ত্রাসীরা জাতীয় নের্তৃবৃন্দের উপর হামলা করছেন। এখন সারাদেশটি কারাগারে রুপান্তুরিত হয়েছে। তিনি স্মৃতিচারন করে বলেন আমি জেলখানায় থেকে দেখেছি এক এমপির কুলাঙ্গার পুত্র তার চিকিৎসক স্ত্রীকে হত্যা করে জেলখানায় আরাম আয়াসে আছে আর দেশের স্বাধীনতার অংশগ্রহনকারী বীরমুক্তিযোদ্ধার মেঝেতে শুয়ে আছে এই হচ্ছে আওয়ামীলীগ এর মুক্তিযুুদ্ধের চেতনা।

গতকাল বুধবার নির্বাচনী প্রচারনার অংশ হিসেবে ফুলবাড়ীতে আসছেন এই খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিএনপির ও তার অ    ঙ্গসংগঠনের শত শত নেতা কর্মি ও সমর্থকেরা ফুলবাড়ী পৌরশহরের ছোট যমুনা নদীর ব্রীজের পশ্চিম পার্শে সমবেত হতে থাকে।

বিকেল ৫টায় রুহুল কবির রিভীর গাড়ীবহর পথসভার মাঝে আসলে সে এলাকাটি জনসমুদ্রে পরিনত হয়। এ সময় রুহুল কবির রিজভী উপস্থিত জনতার সামনে হাত উঁচু করে নেমে আসেন এবং বক্তব্য রাখেন। রুহুল কবির বিজভীর আগমনে মুখরিত হয়ে উঠে ফুলবাড়ীর রাজপথ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য