রমনার বটমুলে ও উদীচীর সম্মেলনে বোমা হামলাকারীরাই রাস মেলায় বোমা হামলায় জড়িতনিজস্ব প্রতিনিধিঃ গতকাল সোমবার দিনাজপুরের কাহারোলে কান্তজিউ মন্দির রাস মেলায় যাত্রা প্যান্ডেলে বোমা হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর নিমচন্দ্র ভৌমিক। এসময়  দিনাজপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি উপস্থিত ছিলেন। প্রফেসর নিমচন্দ্র ভৌমিক বলেন, যারা রমনার বটমুলে ও উদীচীর সম্মেলনে বোমা হামলা করেছিল তারাই কান্তনগরের সাড়ে ৪শত বছরের ঐতিহাসিক ঐতিহ্যকে নষ্ট করার জন্য রাস মেলায় যাত্রা প্যান্ডেলে হামলা করেছে।

তারা দেশটাকে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান বানাতে চায়। এই ঘটনার মাত্র কয়েকদিন আগেও দিনাজপুরে একজন খৃষ্টান ও একজন হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের উপর হামলা হয়েছে। দেশের মানুষের মধ্যে আতংক তৈরী করার জন্য এই হামলা বলে তিনি দাবী করেন। সাম্প্রদায়ীক সম্প্রিতি ও সংস্কৃতিকে নষ্ট করতে জঙ্গীরা এখনও তৎপর। সরকারের দায়িত্ব দূবৃত্তদের খুজে বের করে বিচারের মুখোমুখি করা।
রমনার বটমুলে ও উদীচীর সম্মেলনে বোমা হামলাকারীরাই রাস মেলায় বোমা হামলায় জড়িত
সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেন, মেলায় অভ্যন্তরীন কোন্দলের কোন বিষয় নেই। এঘটনায় বিএনপি জামায়াতকে দায়ী করেন। বোমা হামলায় এই এলাকার মানুষের উপর কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি। অন্যান্য দিনের চেয়ে এখন দর্শনার্থীদের আগমন আরো বেড়েছে। এই মেলায় যাত্রাপালা পুনরায় চালু করা হবে সাংবাদিকদের এমন ধরনের প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গিয়ে এমপি গোপাল বলেন, কান্তজিউ রাস মেলা লক্ষ মানুষের মিলন মেলা। এই এলাকার মানুষের দেশ বিদেশে থাকা বাবা-চাচা, মেয়ে জামাই, ছেলে মেয়ে সবাই বাড়ীতে আসে।

তা ছাড়া একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাড়ে ৪শত বছরের ঐতিহ্যকে আমরা নষ্ট করতে পারিনা। তিনি বলেন মেলায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পরিদর্শনের সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদর দিনাজপুর শাখার সভাপতি বিশ্বজিৎ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক পরিমল চক্রবর্তী তপন প্রমুখ।

এদিকে মেলার ইজারাদার হারিস উদ্দীন যাত্রা, সার্কাস শুরু করার জন্য জোর তদবির শুরু করেছে। যাত্রা ও সার্কাসের আদলে অশ্লীল নৃত্য ও জুয়ার আসর শুরু হবে এলাকাবাসীর মধ্যে এ ধরনের আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। অপর দিকে কাহারোল থানার এস আই আহসানুর রহমান প্রধানকেও প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। জানা গেছে  তিনিও সেদিন মেলায় উপস্থিত ছিলেন। মামলার তদন্ত ভার দেয়া হয়েছে এস আই তাইজুল ইসলামকে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য