News pic (Upzaila)নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ আর মাত্র ৯দিন পর দেশব্যাপী মহান বিজয় দিবস উদ্যাপন হবে। বিজয়ের অর্জিত প্রতিটি মুহুর্ত যেন দেশ গড়ার কাজে দীপ্ত শপথ। উপজেলা প্রশাসন ইতোমধ্যেই ব্যাপক ও বিস্তর কর্মসূচী হাতে নিয়েছে।

উল্লেখযোগ্য কর্মসূচীগুলো হলো বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। এর স্মৃতিচারণ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রামান্য চিত্র ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত উপজেলা শহরের প্রাণকেন্দ্র ডাকবাংলো মুক্ত মঞ্চে প্রদর্শিত হচ্ছে।

এ সময় বীরমুক্তিযোদ্ধা, এলাকার প্রবীণ-নবীণ, তরুন-তরুনী, মির্ডিয়াকর্মী ওই প্রামাণ্য চিত্র এক পলক দেখার জন্য ভীড় জমাচ্ছে মুক্তমঞ্চ এলাকায়। এ প্রদর্শনী দেখে দেশমাতৃকার প্রতি বেড়ে যাচ্ছে শ্রদ্ধা। আর অপরদিকে ঘৃণিত হচ্ছে যুদ্ধাপরাধীরা।

প্রদর্শনী দেখতে আসা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোঃ দবিরুল ইসলাম, ডেপুটি কমান্ডার মোঃ এখলাছুর রহমান, বীরমুক্তিযোদ্ধা আঃ জলিল সরকার তারা জানান- যুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে উপস্থাপিত হচ্ছে।

যারা মুক্তিযুদ্ধ কি এবং কীভাবে তা অর্জিত হয়েছে এর বাস্তব প্রতিচ্ছবি যেন এ দৃশ্য। নতুন প্রজন্ম শুধু দেখবেই না! দেশ গড়ার কাজে নেবে শপথ।

এ দিকে উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতা শাহ্ মোঃ আলমগীর হোসেন উপজেলা পরিষদের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আ’লীগের সা:সম্পাদক মোছাঃ পারুল বেগম ২নং বিনোদনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম তারা জানান- উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ বজলুর রশিদ এ উপজেলায় যোগদানের পর উপজেলাকে একটি মর্ডাণ উপজেলা হিসাবে গড়ে তুলতে যে সমস্ত কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন তার মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রামাণ্য চিত্র অন্যতম।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- উপজেলার পুটিমারা ইউনিয়নের শত শহীদের স্মৃতি ফলক, উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পস চত্ত্বরে শহীদের নাম ফলক ও শহীদ মিনারের সংস্কার শুরু করা হয়েছে। তিনি মহান বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনে উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের উপস্থিতিসহ সহায়তা কামনা করেছেন।

থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইসমাইল হোসেন জানান- সার্বিক আইন শৃংখলা বজায় রাখতে প্রতিদিন প্রতি সন্ধ্যায় পুলিশি নজরদারী রয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য