ওজন বুঝে কথা বলুন তুরস্ককে ইরানের হুঁশিয়ারিআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ তুরস্ককে নিজের ওজন বুঝে কথা বলার আহ্বান জানিয়েছে ইরান। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের সাম্প্রতিক ইরান বিরোধী বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তেহরান আজ (রোববার) এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে। ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সিনিয়র উপদেষ্টা আলী আকবর বেলায়েতি ইরানের তিন নম্বর টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বৃহস্পতিবার এক টেলিভিশন ভাষণে তার পরিবারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের তেল বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন। রাশিয়া এর আগে অভিযোগ করেছিল, এরদোগান ও তার পরিবারের সদস্যরা ইরাক ও সিরিয়ায় তৎপর দায়েশের কাছ থেকে তেল কিনে বিদেশে রপ্তানি করছে।

রাশিয়ার এই বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করতে গিয়ে তুর্কি প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন, ইরানের বিভিন্ন গণমাধ্যমও তার পরিবারের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ তুলছে। এ কারণে তিনি এ ব্যাপারে ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানির বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

আলী আকবর বেলায়েতি আজ তুর্কি প্রেসিডেন্টকে ভদ্রতা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেন, প্রত্যেককে তার নিজের ওজন বুঝে কথা বলা উচিত। তিনি বলেন, ইরান এমন একটি দেশ যার রয়েছে কয়েক হাজার বছরের ইতিহাস। সেইসঙ্গে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তেহরানের ব্যাপক প্রভাব রয়েছে। এ অবস্থায় ইরানের ব্যাপারে কথা বলার আগে যে কারো একশ’বার ভাবা উচিত।

বেলায়েতি বলেন, ইসলামি ইরান বিশ্বের মোড়ল হিসেবে দাবিদার আমেরিকার আগ্রাসনের বিরুদ্ধেও রুখে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু একইসঙ্গে গভীরভাবে বিচার-বিশ্লেষণ করে প্রতিটি কথা বলেছে তেহরান। আর এখন যারা বড় বড় কথা বলছে ইরানের সামনে দাঁড়ানোর সাহস তাদের নেই বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতার উপদেষ্টা বলেন, রাশিয়া আকাশ থেকে তোলা এমন কিছু ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করেছে যাতে দেখা যায়, ইরাক ও সিরিয়ায় দায়েশের নিয়ন্ত্রিত এলাকা থেকে তুরস্কে তেল ট্যাংকারের বহর প্রবেশ করছে। কাজেই সন্ত্রাসীদের সঙ্গে এরদোগানের তেল বাণিজ্য প্রমাণ করার জন্য এর চেয়ে বড় দলিল তুলে ধরার কোনো প্রয়োজন নেই।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য