শ্যামলী পরিবহন থেকে ১৯৯ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক ৩বুধবার গভীর রাতে লালমনিরহাট ১৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)  ঢাকাগামী বিআরটিসি শ্যামলী পরিবহন তল্লাসী করে ১৯৯ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ ৩জনকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন, বাসের ড্রইভার ঢাকা ধামরাই থানার বাচতা গ্রামের জালাল উদ্দিনের পুত্র আব্দুল হক (৩৬), বাসের সুপারভাইজার রংপুর মিঠাপুকুর থানার সংগ্রামপুর গ্রামের খলিল মন্ডলের পুত্র মোঃ নুর আলম (৩৬)  ও বাসের হেলপার বগুড়া সদরের নিশিনধারা উত্তরপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র মোঃ তুষার (৩১)। এসময় বিজিবি সদস্যরা বাসটি আটক করে থানা হেফাজতে রাখে। পরে বাসের যাত্রীদের  যাতে কোন প্রকার অসুবিধা না হয় সেজন্য বিজিবির পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতাসহ বিকল্প বাসের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়।

১৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি) জানায়, বুধবার রাত ১১টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১৫ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের বিশেষ টহলদল এবং টাস্কফোর্স এর নেতৃত্বে লালমনিরহাট বিজিবি ক্যাম্পের  সম্মুখে বুড়িমারী হতে ঢাকাগামী বিআরটিসি শ্যামলী পরিবহন তল্লাসী চালিয়ে ১৯৯ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ ওই পরিবহনের  ড্রাইভার, সুপারভাইজার ও হেলপারকে আটক করা হয়। একই সময়ে যাত্রীবাহী বাসটিও আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়। তবে বাসের যাত্রীদের সুবিধার্থে বিজিবির পক্ষ থেকে বিকল্প বাসের ব্যবস্থা করা হয়।

বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্নেল আহমেদ বজলুর রহমান হায়াতী, পিএসসি বলেন, আটককৃত আসামী এবং মাদকদ্রব্য লালমনিরহাট সদর থানায় সোপর্দ করা  হয়েছে। গাড়িটি শিলিগুড়ি থেকে ৩৪ জন যাত্রী রিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে পরিবহন করছিল। মাদক ও চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি কর্তৃক পরিচালিত অভিযানে সন্মানিত যাত্রীগণ সন্তুষ্টি প্রকাশ ও সহযোগীতা করেন। উল্লেখ্য যে, বিজিবি কর্তৃক পরিচালিত উদ্ধার অভিযানে জেলা প্রশাসসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। তিনি আরও বলেন,  বাসের যাত্রীদের  যাতে কোন প্রকার অসুবিধা না হয় সেজন্য বিজিবির পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতাসহ বিকল্প বাসের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে। আটককৃত মালামালের মূল্য এক কোটি নব্বই হাজার ছয় শত টাকা।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য