05স্পোর্টস: চ্যাম্পিয়ন্স লিগের একটিসহ টানা তিন ম্যাচে কোন জয় নেই ম্যানচেস্টার সিটির। অ্যাস্টনভিলার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করার পর নিজেদের মাঠেই লিভারপুলের কাছে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত হতে হয়েছে ম্যানুয়েল পেলিগ্রিনির শিষ্যদের। এরপর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জুভেন্তাসের কাছে হেরেছে ১-০ গোলে।

টানা হারে যখন বিপর্যস্ত, তখন ম্যানচেস্টার সিটির জন্য একটি জয় অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল। অবশেষে সেটাই সাউদাম্পটনের বিপক্ষে পেয়ে গেলো ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের জায়ান্টরা। নিজেদের মাঠ ইত্তিহাদ স্টেডিয়ামে তারা ৩-১ গোলে হারিয়েছে অতিথি সাউদাম্পটনকে।

হাঁটুর ইনজুরিতে পড়ার পর দীর্ঘ বিরতি দিয়ে অবশেষে মাঠে ফিরেছেন সার্জিও আগুয়েরো। তবে, তিনি গোল না পেলেও তার সঙ্গে ঠিকই হয়ে ফিরেছে শিরোপা ফেভারিট ম্যানসিটি। মুষলধারে বৃষ্টির মাঝে খেলা হওয়াতে, না হয় ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো।

খেলার ৯ মিনিটের সময় গোলের সূচনা করেন কেভিন ডি ব্র“ইন। সাউদাম্পটনের ওপর শুরু থেকেই চা সৃষ্টি করে ম্যানসিটি। যার জের ধরে, ম্যাচের নবম মিনিটে রহিম স্টার্লিং বলা যায় সাউদাম্পটন ডিফেন্ডার ইয়োশিদার কাছ থেকে বল কেড়ে নেন এরপর বাড়িয়ে দেন ডি ব্র“ইনের কাছে। যেটাকে গোলে পরিবর্তণ করতে তার কোনই কষ্ট হয়নি।

প্রিমিয়ার লিগে অভিষিক্ত ফ্যাবিয়ান ডেলপ দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দেন এদিন। ২০ মিনিটে কেভিন ডি ব্র“ইনের কাছ থেকে বল পেয়ে বাম পায়ের দারুন এক শটে সাউদাম্পটনের জালে বল জড়ান ডেলপ।
৪৯ মিনিটে একটি গোল শোধ করে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন সাউদাম্পটনের শেন লং। সাদিও ম্যানের সেট পিচ শট থেকে বল পেয়ে যান লং এবং বাম পায়ের শটে বল জড়ান সিটির জালে।

৬৯ মিনিটে সাউদাম্পটনের জালে পরাজয়ের শেষ চিহ্ন এঁকে দেন আলেক্সান্ডার কোলারভ। কেভিন ডি ব্র“ইনের পাস থেকে বল পেয়ে বাম পায়ের শটে গোলটি করেন কোলারভ। এই জয়ের ফলে ১৪ ম্যাচ শেষে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত শীর্ষে উঠেছে ম্যানসিটি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য