01-kashmirআন্তর্জাতিক: ভারতের প্রখ্যাত লেখিকা অরুন্ধতী রায় অভিযোগ করে বলেছেন, দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে এবং ‘অসহিষ্ণুতা’ শব্দটি ওই ‘আতঙ্কিত’ পরিবেশ বোঝানোর জন্য যথেষ্ট নয়। শনিবার পুনে শহরে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময় এ অভিযোগ করেছে বুকার পুরস্কারপ্রাপ্ত এই লেখিকা।

এর আগে বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খানসহ আরো অনেকে দেশে অসহিষ্ণু পরিস্থিতি বিরাজ করছে বলে মন্তব্য করে ক্ষমতাসীনদের রোষের শিকার হয়েছিলেন। কিন্তু অরুন্ধতী আরো কঠিনভাবে মোদি সরকারের সমালোচনা করেছেন।

তিনি বলেন,‘দেশে এখন হত্যা এবং পুড়িয়ে মারাসহ সংখ্যালঘুদের ওপর নানা ধরনের নির্যাতন চলছে।’ ভারতে বিরাজমান এ পরিস্থিতি সুষ্পষ্টভাবে তুলে ধরতে তিনি নতুন শব্দ খুঁজে বের করা প্রয়োজন বলেও উল্লেখ করেছেন। কেননা তার মতে ‘অসহিষ্ণুতা’ শব্দ দিয়ে এসব নির্যাতন-নীপিড়নের ঘটনা যথাযথভাবে প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে ‘হিন্দু রাষ্ট্রবাদ’য়ের ছত্রছায়ায় গোটা ভারতে ব্রাক্ষণ্যবাদ ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন। তার ভাষায়,‘‘বিজেপি দেশের সমাজ সংস্কারকদের ‘মহান হিন্দু’ হিসেবে মহিমান্বিত করার চেষ্টা করছে। ড. বি আর আম্বেদকরকেও হিন্দু বলে উল্লেখ করা হচ্ছে যদিও তিনি হিন্দু ধর্ম ছেড়ে দিয়েছিলেন।’ তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দেশের ইতিহাসকে পুনরায় লেখা হচ্ছে এবং সরকার জাতীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করছে।’

অরুন্ধতী রায়ের মন্তব্যের পরেই ব্যাপক শ্লোগান দিয়ে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ কর্মীরা তাকে জাতীয়তা বিরোধী, পাকিস্তান সমর্থক এবং ভারতীয় সেনা বিরোধী বলে অভিহিত করেছে। তার মন্তব্যে সমস্ত ভারতীয়’র অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে বলে বিদ্যার্থী পরিষদের দাবি। পরে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের নিজেদের হেফাজতে নেয়।

এর দু সপ্তাহ আগে দেশের বিরাজমান পরিস্থিতিতে সরকারের নীরবতার প্রতিবাদে জাতীয় পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অরুন্ধতী রায়।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য